Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট ২০১৭, ৭ ভাদ্র, ১৪২৪, ২৮ যিলকদ ১৪৩৮ হিজরী

মহানবীর সা. ধারাবাহিক জীবনী

| প্রকাশের সময় : ৯ জুন, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ছারিয়্যা তোরবা
সপ্তম হিজরীর শাবান মাস
এ ছারিয়া হযরত ওমর ইবনে খাত্তাব (রা.)-এর নেতৃত্বে পরিচালনা করা হয়। তাঁর সাথে ছিলেন তিরিশ জন সাহাবা। তারা রাতের বেলা সফর এবং দিনের বেলায় লুকিয়ে থাকতেন। বনু হাওয়াযেন গোত্রের লোকেরা এ খবর পাওয়ার পর পালিয়ে যায়। হযরত ওমর (রা.) এবং তাঁর সঙ্গীরা তখন মদীনায় ফিরে আসেন।
৪. ফেদেক অঞ্চলে ছারিয়্যা
সপ্তম হিজরীর শাবান মাস
হযরত বশীর ইবনে সা’দ আনসারী (রা.)-এর নেতৃত্বে তিরিশজন সাহাবার একটি দল অভিযানে বের হন।
আর রাহীকুল মাখতুম, মূল : আল্লামা সফিউর রহমান মোবারকপুরী, অনুবাদ : খাদিজা আখতার রেজায়ী
দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম
প্র:- ইমামতের জন্যে কাকে প্রাধান্য দেয়া হবে?
উ:- নির্দিষ্ট ইমামের অবর্তমানে উপস্থিত লোকদের মধ্য হতে যে পরহেজগার ব্যক্তি নামাযের মাসআলা-মাসায়েল বেশি জানেন এবং ভালো তিলাওয়াত করতে পারেন তাকে ইমামতের দায়িত্ব দেয়া হবে। এ বিষয়ে দু’জন সমান পারদর্শী হলে, যে বেশি হাদীস জানেন তাকে প্রাধান্য দেয়া হবে। হাদীসের উপরও দু’জনের সমান দক্ষতা থাকলে, যে বেশি খোদাভীরু-পরহেযগার তাকে প্রাধান্য দেয়া হবে। এ বিষয়েও দু’জন সমান হয়ে গেলে, যার বয়স বেশি তাকে প্রাধান্য দেয়া হবে।
প্র:- অনেক সময়ই উপযুক্ত ইমাম পাওয়া যায় না। এমতাবস্থ্ায় কি জামাআত বাদ দিয়ে দেয়া যাবে?
উ:- না, আহলে-সুন্নত ওয়াল জামাআতের আকীদানুযায়ী যোগ্য ইমামের অনুপস্থিতিতে ফাসিক-ফাজির-এর পিছনেও নামায আদায় হয়ে যাবে।
প্র:- জামাআতে নামায আদায়ের হিকমত-বরকত ও ফযীলত কি?
উ:- ১. একা নামায পড়ার চেয়ে জামাআতে নামায পড়াতে সাতাশ গুণ বেশি সওয়াব পাওয়া যায়। ২. মসজিদে যাওয়ার অন্যান্য ফযীলতসমূহ লাভ করা যায়। ৩. মুসলমানদের মধ্যে ঐক্য ও ভ্রাতৃত্বের চেতনা সংহত হয়। ৪. সাধারণ মানুষের আলেমের কাছ থেকে নানা বিষয় জানার সুযোগ হয়। ৫. এলাকাবাসীর সমস্যাদি নিয়ে আলোচনা করা যায়। ৬. পরস্পরের খোঁজখবর নেয়া যায়। ৭. নামাযে ঠিকমত মনোনিবেশ করা যায়। ইত্যাদি।
-মুফতী ওয়ালীয়ুর রহমান খান

আল কোরআনের কাব্যানুবাদ
মুহিববুর রহমান খান
সূরা আ’রাফ
মক্কায় অবতীর্ণ : আয়াত ২০৬ রুকু : ২৪
আশ্রয় চাহি আল্লাহর যেন শয়তান দূরে রয়
(শুরু করিলাম) আল্লাহর নামে পরম করুণাময়
৭৯। তোমাদের হিতোপদেশ দিয়াছি কিন্তু (দুঃখ বড়)
উপদেশ দানকারীকে তোমরা পছন্দ নাহী কর।’

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।