Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

ভারতের সঙ্গে দ্রুত তিস্তা চুক্তি করতে চায় বাংলাদেশ -দ্য হিন্দু

প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক

কয়েক দশক ধরে চলামান অমীমাংসিত দুই প্রতিবেশি রাষ্ট্র বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে স্থল ও সমুদ্রসীমানা চুক্তির পর এবার ভারতের সঙ্গে তিস্তা চুক্তি করতে চাচ্ছে বাংলাদেশ। চার বছর আগে দুই দেশের সরকার এই চুক্তির করার বিষয়ে সম্মত হয়েছিলেন।
গত শুক্রবার বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহারিয়ার আলম বাংলাদেশ-ভারত ডায়ালগে দ্রুত তিস্তার পানি চুক্তির বিষয়ে উল্লেখ করেন। দীর্ঘদিন ঝুঁলে থাকা প্রতিবেশি দুই দেশের মধ্যে এই চুক্তিটি করার আগ্রহ প্রকাশ করেন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির আপত্তির কারণে কংগ্রেস ও বিজেপি সরকার বাংলাদেশের সঙ্গে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তিটি করতে ব্যর্থ হয়।
এ বিষয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী বলেন, রাজনৈতিক সদিচ্ছা থাকলে দুই দেশের মধ্যে চলমান যে কোনো সঙ্কটই সমাধান করা সম্ভব। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় রাখার জন্য পানির ইস্যুটি স্পর্শকাতর ও গুরুত্বপূর্ণ। দুই দেশের মধ্যে চলামান অমীমাংসিত বিষয়ের চুক্তি প্রতিবেশি দুই দেশের সম্পর্কে নতুন মাত্রা সংযোজন করেছে। একই সঙ্গে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যারে বলেও আশা প্রকাশ করেন মাহমুদ আলী।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী সম্প্রতি বলেছেন, ভারতের সঙ্গে নতুন করে আর কোনো চুক্তি করা হবে না। অমীমাংসিত ও ঝুঁলে থাকা তিস্তার পানি চুক্তি সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত। এই বিষয়টি বর্তমানে ভারতের আদালতে রয়েছে।
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহারিয়ার আলম বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের নিরাপত্তার নানা বিষয়ে সহায়তা করা হচ্ছে এবং এই সহায়তা নিয়মিত থাকবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।
বিজেপির সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব বলেন, নয়াদিল্লি ঢাকার সঙ্গে সব সমস্যার সমাধান করবে। গত চার দশকে আমরা উপলব্ধি করেছি ভারত একটি বড় দেশ তবে বড় ভাই নয়। সূত্র : দি হিন্দু।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন