Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পুলিশ সুপার শিশুটিকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিলেন

| প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

সরকার আদম আলী, নরসিংদী থেকে : অপহরনের ৩ দিন পর সাবিকুন্নাহার নামে ৭ মাসের শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। নরসিংদী থানা পুলিশ গাজীপুরের বোর্ডবাজারের ডেকেরচালা এলাকার জনৈক বিল্লাল মিয়ার বাড়ীর ভাড়াটিয়া আসু মিয়ার ঘর থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করেছে। গ্রেফতার করেছে অপহরনকারী সাবিকুন্নাহারকে। গতকাল শনিবার বিকেলে নরসিংদী পুলিশ সুপার আমেনা বেগম তার সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে সাংবাদিকদেরকে এ তথ্য জানিয়েছেন। ঘটনার সংক্ষিপ্ত বিবরণ থেকে জানা গেছে, নরসিংদী শহরের চৌয়ালা মহল্লার আলমগীর হোসেনের বাড়ী ভাড়ায় থাকতো রাকিবুল হাসান ও তার স্ত্রী সাবিনা আক্তার। গত ২৮ জুন বিকেলে ভাড়াটিয়া রাকিবুল হাসান ও তার স্ত্রী সাবিনা আক্তার এক সুযোগে বাড়ীওয়ালা আলমগীর হোসেনের সাত মাসের শিশু কন্যা সাবিকুন্নাহারকে অপহরন করে পালিয়ে যায়।
এই মুক্তিপন না দিলে সাবিকুন্নাহারকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেয়। এই অবস্থায় অপহৃতা সাবিকুন্নাহারের মা অপহরনকারীদের বিকাশ নাম্বারে ৪০ হাজার টাকা পাঠাতে বাধ্য হয়। ৩ দিনের অভিযানে গত ১ জুলাই সকালে উল্লেখিত এলাকা থেকে অপহৃতা সাবিকুন্নাহারকে উদ্ধার করে এবং মামলার ২ নং আসামী সাবিনা আক্তারকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। তবে তার স্বামী রাকিবুল হাসান রানা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়ী থেকে পালিয়ে যায়। পরে উদ্ধারকৃত শিশু সাবিকুন্নাহার ও অপরনকারী সাবিনা আক্তারকে নিয়ে থানা পুলিশ পুলিশ সুপার আমেনা বেগমের অফিসে গেলে তিনি শিশুটিকে কোলে নিয়ে আদর করেন এবং শিশুটিকে উদ্ধার সম্পর্কিত ঘটনা অধস্তন পুলিশ কর্মকর্তাদের নিকট থেকে অবগত হন। পরে পুলিশ সুপার শিশুটিকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেন। দীর্ঘ ৩ দিন পর শিশুটির মা তাকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন এবং শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ সুপার আমেনা বেগম ও নরসিংদী থানা পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার (অপরাধ) হাসিবুল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ শফিউর রহমান ও নরসিংদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ