Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রাজশাহী অঞ্চলে নারী ও শিশু নির্যাতন বিভিন্ন মাত্রায় অবনতি

| প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

রাজশাহী ব্যুরো : রাজশাহী অঞ্চলে গত এক মাসে হত্যা, আত্মহত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে ২৪ জন নারী ও শিশু। এর মধ্যে ১১ জন নারী ও শিশু নির্যাতনের শিকার। এই মাসে হত্যার ঘটনা ঘটেছে দুইটি ও আত্মহত্যা করেছেন সাতজন নারী ও শিশু। আর ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ছয়জন নারী ও শিশু। উন্নয়ন সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) এর জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। এতে বলা হয়েছে, এ অঞ্চলে নারী ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি বিভিন্ন মাত্রায় অবনতি ঘটছে। যৌতুক ও পরকীয়ার কারণে অধিকাংশ নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। অনেক ক্ষেত্রে বিদেশি কিছু টিভি সিরিয়াল পরকিয়াকে উৎসাহিত করছে। এছাড়া পারিবারিক কলহ ও প্রেম ঘটিত কারণে হত্যা-আত্মহত্যা ও অমানবিক নির্যাতনের মতো ঘটনা ঘটছে। নগরীর মতিহার চক কাশিনাথপুর থানার ২২ বছরের নারী অন্তঃসত্বা ও প্রতারণার শিকার, বাঘা উপজেলার হিজল পল্লি ফরাজিপাড়া এক গৃহবধুকে স্বামীর নির্যাতনে মৃত্যুর অভিযোগ, একই উপজেলায় বিধবা এক নারীকে স্বামীর পরিবার কর্তৃক গাছের সাথে বেধে নির্যাতনের অভিযোগ, বাঘা উপজেলায় সরেণহাট গ্রামে ১৭ বছরের পুথির আত্মহত্যা, তানোর উপজেলায় কয়েলহাট গ্রামের এক স্কুলছাত্রী অপহরণ, পবার পারিলা গ্রামে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার, দূর্গাপুর উপজেলার হাটকান পাড়া এলাকার এক মাদ্রাসা শিক্ষক কর্তৃক শিশু বলাৎকারের শিকার, তানোর বড়পুকুড়িয়ার হঠাৎপাড়া গ্রামের মোবাইল ফোনকে কেন্দ্র করে ১২ বছরের এক শিশুকে বন্ধুরা চাকু ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে, একই উপজেলায় পাচন্দর গ্রামের ১৯ বছরের এক অন্তঃসত্বা কিশোরীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ, নগরীর পান্তাপাড়া এলাকায় ১৫ বছরের এক কিশোরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার।
লফস এর নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন বলেন, সংবাদ পত্রে প্রকাশিত ঘটনার বাইরেও অনেক ঘটনা ঘটে যা প্রকাশিত হয় না বা কোন তথ্য জানা যায় না এমন বাস্তবতায়। রাজশাহীতে নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রকাশিত তথ্য হতাশাজনক। রাজশাহী অঞ্চলে নারী-শিশু নির্যাতনসহ সার্বিক ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত ও দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। তিনি বলেন অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা না গেলে ক্রমশই অপরাধীরা উৎসাহিত হবে এবং অপরাধের মাত্রা বৃদ্ধি পাবে। লফস সকল নারী শিশু নির্যাতন ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত স্বাপেক্ষে অপরাধীর কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন