Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

ঈদে লাক্স চিরচেনা সৌরভের গল্প আলোচিত

| প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বিনোদন রিপোর্ট: অনেক দিন পরে দর্শকের মাঝে ঈদের নাটক নিয়ে উৎসাহ দেখা যাচ্ছে। সামাজিক মাধ্যমে চলছে আলোচনা সমালোচনা। এবারের ঈদে আর টিভিতে প্রচার হয় লাক্স চিরচেনা সৌরভের গল্প। এতে সাতটি উপন্যাসের অনুপ্রেরণায় সাতটি নাটক নির্মিত হয়েছে। প্রতিটি নাটকের গল্প বলার ধরন, লোকেশন, অভিনয় সব কিছুই ছিল বেশ উপভোগ্য। ঈদের ৩য় দিনে প্রচারিত হয় মাবরুর রশিদ বান্না পরিচালিত গর্ভধারিনী উপন্যাসের অনুপ্রেরণায় মুখশের আড়ালে। নাটকটি প্রচারের পর অনেকই বলছেন এমন সামাজিক ম্যাসেজ নির্ভর নাটক আরো বেশি হওয়া উচিত। তবে কেউ কেউ সমালোচনা করছেন নাটকগুলোতে মূল উপন্যাসের গল্প দেখা যাচ্ছে না। ব্যাপারে এশিয়াটিক মাইন্ডশেয়ারের হেড অফ কনটেন্ট মারুফ রেহমান বলেন, এখানে কোন উপন্যাসেরই নাট্যরূপ দেয়া হয়নি। আমরা উপন্যাসের অনুপ্রেরণায় আমাদের বর্তমান প্রেক্ষাপটে নাটকের গল্প সাজিয়েছি। এবং এই কথাটা নাটকের শুরুতে ও শেষে খুব ভালভাবে বলা হয়েছে। মুখশের আড়ালে নাটকে দেখা যায় একটি মেয়ে সুইসাইড করে। যথারীতি সমাজ তাকে দোষ দেয়। ভাল মেয়ে কেন সুইসাইড করতে যাবে? এই একতরফা দোষ দেয়ার বিষয়টা মেয়েটির বন্ধুদের ভাল লাগল না। তারা প্রতিবাদ করে। সেই সাথে সুইসাইড করার পেছনের কারণটা বের করার চেষ্টা করে। খুঁজতে গিয়ে তারা একজন ধর্ষকের মুখোমুখি হয় যিনি কিনা প্রভাশলী। তার প্রাভাবের কারণে সে সব কিছু থেকে ধরা ছোঁয়ার বাইরে। এই লোক কিভাবে মেয়েদের ট্র্যাপে ফেলে এটা সবাই মিলে সমাজের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করে। গর্ভধারিণী উপন্যাসে একদল তরুণের অন্যায়ের প্রতিবাদ করাটাই ছিল আমাদের অনুপ্রেরনা। প্রচলিত নিয়মের বিরুদ্ধেও যে অবস্থান নেয়া যায় সেটাই আমাদের অনুপ্রেরণা। এই নাটকটির সাথে এখন নেটফ্লিক্স এর একটি সিরিয়ালেরও তুলনা করা হচ্ছে। নেটফ্লিক্সের এই সময়ের খুব জনপ্রিয় একটা সিরিজের মুল গল্প সুইসাইড। একটা মেয়ে সুইসাইড করে, বন্ধুরা তার তদন্ত করে। মুখশের আড়ালে নাটকের সুইসাইড এর ধরন, কারণ এবং বিবরণ সব কিছুই নেটফ্লিক্স এর থেকে আলাদা। শুধু মেয়েটার মরে যাওয়াটাই মিল। হ্যা ওখানেও বন্ধুরা তদন্ত করে। কিন্তু সেই তদন্তের ধরন এই নাটকের মতো না। এই সব সমালোচনাকেও পজেটিভ ভাবেই দেখছেন সংশ্লিষ্টরা। কারণ দর্শক নাটক দেখছে। ঈদের সময় সব চেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ থাকে দর্শককে দেশী নাটকের প্রতি আগহী করে তোলা। সেটা এবারের কিছু নাটক খুব ভাল মতই করতে পেরেছে। সামাজিক মাধ্যমে আলোচলান চলছে ছবিয়ালের নাটক নিয়েও। ছবিয়ালের ভাই ব্রাদারদের গল্প বলার ধরনের সাথে দর্শক পরিচিত। কিন্তু এই পর্যন্ত প্রচারিত প্রতিটি নাটক ছিল দর্শকের জন্য চমক। রেদওয়ান রনি পরচালিত মিস্টার জনি দেখে অনেকেই আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। যেখানে একটি কুকুরের প্রতি মানুষের ভালবাসার গল্প দেখানো হয়েছে। ওদিকে আদনান আল রাজিবের বিকেল বেলার পাখি নাটকে মধ্যবিত্ত পরিবারের চাওয়া পাওয়ার টানাপোড়েন দেখে দর্শক মুগদ্ধ হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ