Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

প্রতিবন্ধী ভাগ্নের জমি আত্মসাৎ মামার

| প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

তানোর (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা : রাজশাহীর তানোরের আকচা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসলাম মন্ডলের বিরুদ্ধে আপন ভাগ্নে ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কামরুল ইসলামের হিস্যার জমি জালিয়াতি ও প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিক্ষকরা হলেন মানুষ গড়ার কারিগর সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধেই চাঞ্চল্যকর এই জালিয়াতির খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে। স¤প্রতি এই ঘটনায় শারীরিক প্রতিবন্ধী কামরুল ইসলাম বাদি হয়ে শিক্ষক আসলাম মন্ডলের বিরুদ্ধে স্থানীয় সাংসদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছে অভিযোগ করেছেন। এদিকে মামার বিরুদ্ধে ভাগ্নের সম্পত্তি আতœসাতের এই খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে চরম অসন্তোষ উঠেছে সমালোচনার ঝড়। স্থানীয় অভিভাবকগণ শিক্ষক আসলামের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করে সংিিশ্লষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্কুলের এক সহকারী শিক্ষক অভিযোগ করে বলেন, ইতিপূর্বে প্রায় ৫০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে সিন্দুকাই গ্রামের দিদার বক্সের পুত্র আব্দুল কাদেরকে চাকরি পেতে অষ্টম শ্রেণি পাশের ভূয়া সনদ দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক আসলাম মন্ডল।
জানা গেছে, তানোর পৌর সদরের গোল্লাপাড়া গ্রামের জাভেদ মন্ডলের পুত্র শারীরিক প্রতিবন্ধী কামরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, তার নানীকে হজ্বে পাঠানোর কথা বলে তার মামা শিক্ষক আসলাম মন্ডল তাকে তানোর সাবরেজিস্ট্রার অফিসে নিয়ে এসে প্রতারণা করে তার মা রাহেমা বেগমের হিস্যার সম্পত্তি রেজিষ্ট্রি করে নিয়েছেন। এ ঘটনায় শারীরিক প্রতিবন্ধী কামরুল ইসলাম তার মামা আসলাম মন্ডলের বিরুদ্ধে আদালতে মামলার প্রস্ততি নিলে তাকে সম্পতি ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশুতি দিয়ে মামলা করা থেকে বিরত রাখেন। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও সম্পত্তি ফিরিয়ে না দিয়ে শিক্ষক আসলাম উল্টো কামরুল ইসলামের পরিবারকে নানা ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিচ্ছেন। এদিকে অসহায় কামরুল ইসলাম তাদের নায্যহিস্যা ফেরে পেতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এব্যাপারে কামরুল ইসলাম বলেন, তার মামা শিক্ষক আসলাম মন্ডল জালিয়াতি ও প্রতারণা করে তাদের হিস্যার সম্পত্তি হাতিয়ে নিয়েছেন। এব্যাপারে শিক্ষক আসলাম মন্ডল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার মায়ের সম্পত্তি তিনি নিয়েছেন। এটা নিয়ে তাদের মধ্যে একটু ঝামেলা হয়ে আছে সময় মতো বিষয়টি আপোষ-মিমাংসা করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন