Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

অবশেষে লন্ডন গেলেন ইলিয়াস আলীর স্ত্রী

| প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : অবশেষে লন্ডন গেলেন নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসীনা রুশদির লুনা। আদালতের নিদের্শে তাকে যুক্তরাজ্য যেতে দিলেন বিমানবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশ। গতরাতে লন্ডন সময় রাত সাড়ে ৭ টায় তিনি বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে লন্ডন পৌঁছান। আগামীকাল তাহসিনা রুশদির লুনা লন্ডনের ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্ট ইংল্যান্ডের এক অনুষ্ঠানে যোগদানের কথা রয়েছে। ইলিয়াস আলী ও তাহসিনা রুশদির লুনা দম্পতির বড় ছেলে আবরার ইলিয়াস লন্ডনের ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্ট ইংল্যান্ড থেকে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেছেন। এর আগে গত রবিবার সকালে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে তার লন্ডন যাওয়ার শিডিউল ছিল। কিন্তু বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে যেতে দেয়নি।
ইলিয়াস আলী ও লুনা দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে বড় ছেলে আবরার ইলিয়াস যুক্তরাজ্যের বিস্টলে ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্ট ইংল্যান্ডে এলএলবিতে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেছেন। ছোট ছেলে লাবিব সারার যুক্তরাজ্যের কভেন্ট্রি ইউনিভার্সিটিতে অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সে দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। ইলিয়াস আলী নিখোঁজের সময় ক্লাস থ্রিতে পড়ুয়া একমাত্র মেয়েটি এখন অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।
বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, গতকাল সকাল ১১টায় তাহসীনা রুশদী লুনার সঙ্গে তার মোবাইলে কথা হয়েছে। তিনি বিমানবন্দর ত্যাগ করেছেন। সকাল সোয়া ৯টার পর থেকে বিমানবন্দর বসিয়ে রাখার পর বেলা পৌনে ১১টার দিকে তিনি লন্ডন যেতে পারবেন বলে জানান ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। এরপর বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে ঢাকা ত্যাগ করেন লুনা। গতকাল বুধবার লন্ডনের স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ৭ টা তিনি লন্ডন পৌঁছায়েছেন।
এর আগে সকাল সোয়া ৯টার দিকে শাহজালাল বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন থেকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তাহসীনা রুশদী লুনা সাংবাদিকদের জানান, আদালতের সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা থাকার পরও বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে লন্ডন যেতে বাধা দিয়েছে। তারা (পুলিশ) বলছে, আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হয়েছে। অথচ রায়ের আদেশে বলা আছে আদালতের অন্য কোনো নির্দেশ ছাড়া তাকে বিদেশ যেতে বাধা দেওয়া যাবে না।
গত রবিবারও তাকে যুক্তরাজ্য যেতে বাধা দেওয়া হয়েছিল। এরপর সোমবার উচ্চ আদালতে রিট করেন লুনা। রিটের শুনানিতে লুনাকে বিদেশ যেতে বাধা না দেওয়ার নির্দেশ দেন আদালত। একই সঙ্গে কেন তাকে বাধা দেওয়া হয়েছে তা জানতে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে রুল জারি করা হয়। ১৪ জুলাই বড় ছেলে আবরার ইলিয়াসের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অভিভাবক হিসেবে উপস্থিত থাকতে তাহসীনা রুশদির লুনার যুক্তরাজ্যে গেলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ