Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী

তিন বছরে এক’শ কোটি ডলার বিনিয়োগে আগ্রহী ভিওন গ্রুপ

| প্রকাশের সময় : ১৪ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী তিন বছরে টেলিযোগাযোগ খাতে নতুন করে ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগের আগ্রহের কথা জানিয়েছে বাংলালিংকের পৃষ্টপোষক প্রতিষ্ঠান ভিওন। মোবাইল ফোন অপারেটর বাংলালিংকের উন্নয়নে বিশেষ করে নেটওয়ার্ক স¤প্রসারণ, তরঙ্গ (স্পেকট্রাম) ও ডিজিটাল সেবার উন্নয়নে এই অর্থ ব্যয় করা হবে বলে ভিওন গ্রæপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জিন-এভস চার্লিয়ার জানিয়েছেন। বাংলাদেশ সফররত ভিওনের সিইও গতকাল বৃহস্পতিবার সোনারগাঁও হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন।
চার্লিয়ার বলেন, গত ১২ বছরে বাংলালিংকে আড়াইশো কোটি ডলারের বেশি অর্থ বিনিয়োগ করা হয়েছে। বাংলালিংক ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। উপযোগী বিনিয়োগ ও নীতিমালা বিদ্যমান থাকলে আগামী তিন বছরে আরো এক বিলয়ন ডলার বিনিয়োগের ইচ্ছা আমাদের আছে। তিনি বলেন, বাংলালিংককে দেশের শীর্ষস্থানীয় যোগাযোগ এবং ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে আগ্রহী ভিওন। স¤প্রতি প্রকাশিত টুজি ও থ্রিজি তরঙ্গ (স্পেকট্রাম) বরাদ্দ এবং ফোরজি সেবার খসড়া নীতিমালার বিষয়ে জানতে চাইলে ভিওন সিইও বলেন, টেলিযোগাযোগ খাতে অসামঞ্জস্যপূর্ণ করহার এবং তরঙ্গের উচ্চমূল্যের সম্মিলিত অর্থনৈতিক চাপ বিনিয়োগের অন্তরায় এবং তা বিবেচনায় আনা উচিত। আন্তর্জাতিক মানদÐের হিসাবে এই করহার ও তরঙ্গমূল্যকে ‘বিশ্বের অন্যতম সর্বোচ্চ’ বলে বর্ণনা করেন চার্লিয়ার। এটি দেশব্যাপী থ্রিজি ও ফোরজি চালুর ক্ষেত্রে বিনিয়োগকে প্রভাবিত করবে, যা উন্নত গ্রাহক সেবার অন্তরায়। যত দ্রæত সম্ভব তরঙ্গ নিতে বাংলালিংক নীতিনির্ধারকদের সাথে একত্রে কাজ করতে ভিওন আগ্রহী বলেও জানান চার্লিয়ার।
বাংলাদেশে মোবাইল টাওয়ার ব্যবসায় অধিক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন কোম্পানির অংশগ্রহণ করা উচিত বলে মতপ্রকাশ করেন তিনি। চার্লিয়ার বলেন, এটি (নীতিমালা) বাস্তবায়িত হলে বাংলালিংক তার টাওয়ার বিক্রি করতে পারবে, যার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ মূলধন অবমুক্ত হবে এবং তা তরঙ্গ অধিগ্রহণ, নেটওয়ার্ক এবং অত্যাধুনিক ডিজিটাল সেবার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে। বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এরিক অস, বাংলালিংকের সিনিয়র ডিরেক্টর অব জিআর অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স তৈমুর রহমান ও হেড অব কর্পোরেট কমিউনিকেশনস্ আসিফ আহমেদসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির হিসাবে বাংলালিংকের ৩ কোটি ২০ লাখের বেশি গ্রাহক রয়েছে। এটি নেদারল্যান্ডসভিত্তিক কোম্পানি ভিওন লিমিটেডের একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর