Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

আয়া দিয়ে সিজার করায় গর্ভবর্তীর মৃত্যু লাশের মূল্য ২ লাখ টাকা!

| প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

কচুয়া (চাঁদপুর) উপজেলা সংবাদদাতা :চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার সেন্ট্রাল হাসপাতালে আয়া দিয়ে সিজার করায় এক গর্ভবর্তী মহিলার মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার সাচার বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সাচার বাজার ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী বিক্ষোভ করে সেন্ট্রাল হাসপাতালে তালা ঝুলিয়ে দেয়। পরে সাচার পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দূর্গাপুর গ্রামের মান্নান মাষ্টার তাঁর স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৩৫) কে সিজারিং করার জন্য সাচার সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে কোনো ডাক্তার না থাকায় ওই হাসপাতালের আয়া দিয়ে সিজার করার ফলে সন্তান প্রসব হয়। অদক্ষ ও অনভিজ্ঞ আয়া দিয়ে সিজার করার ফলে ফাতেমা বেগমের জরায়ুতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়। ফাতেমা বেগমের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে ঢাকা প্রেরণ করে। পরে ঢাকা নেবার পথে রাতে ফাতেমা বেগম মারা যায়। হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ ও ডাক্তারগণ মৃত্যুর খবর শুনে পালিয়ে যায়। শুক্রবার সকালে তাঁর মৃত্যুর খবর শুনে এলাকাবাসী বিক্ষোভ করে। এ ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে চাননি। ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য বাদী পক্ষের সাথে আপোস হয়ে ঘটনাটি মিমাংসা করে নেয়ার জন্য ২লক্ষ টাকা দেন। মান্নান মাষ্টার টাকা নিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে জোরপূর্বক ভাবে তাকে ২ লাখ টাকা ধরিয়ে দেয়া হয়। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন