Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

কাশ্মীরে ফের চীনের হস্তক্ষেপের হুমকি

প্রেসিডেন্টের শি’র সঙ্গে ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টার সাক্ষাৎ

| প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ফের কাশ্মীর হস্তক্ষেপ করার হুমকি দিল চীন। ব্রিকস সম্মেলনের প্রস্তুতি সংক্রান্ত আলোচনা করতে চীন সফরে রয়েছেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। তবে চীনা সংবাদমাধ্যমের প্রকাশিত খবর অনুযায়ী ডোকলাম ইস্যু নিয়ে ভারত সম্পর্কে কোনও অবস্থাতেই নরম মনোভাব নিতে নারাজ বেইজিং। তার সফর শুধুমাত্র ব্রিকস সম্মেলনকে কেন্দ্র করেই হবে। ডোকলাম ইস্যু নিয়ে ভারত সম্পর্কে এই মুহূর্তে যা সিদ্ধান্ত চীনের, সেখানে কোনও পরিবর্তন আসবে না।
ভারতের উপর চাপ সৃষ্টি করতে বদ্ধপরিকর চীন। চীনের সংবাদমাধ্যমের পর এবার চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ)-র এক সমরবিশারদ জানিয়েছেন ভারত পিছু না হঠলে জম্মু-কাশ্মীরে হস্তক্ষেপ করবে চীন। গতকাল মুখোমুখি বৈঠক করেছেন চীনের প্রতিনিধি ইয়াং জেইচির সঙ্গে। গেøাবাল টাইমসে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইয়াং বলেছেন, ‘তৃতীয় পক্ষ হিসেবে চীন-ভুটান সীমান্ত সমস্যা নিয়ে ভারতীয় বাহিনী কি অনধিকার প্রবেশ করে রাস্তা তৈরি আটকাতে পারে? তাহলে পাকিস্তানের অনুরোধে তৃতীয় দেশে কাশ্মীরের বির্তকিত এলাকায়ও প্রবেশ করতে পারে’।
তিনি আরও জানান, ভুটানের দেওয়া বিবৃতিতে কোথাও এটা বলা ছিল না যে তারা এই বিষয়ে ভারতের কাছে সাহায্য চেয়েছে। এমনকী ভারতীয় সেনা যে সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে সে বিষয়েও তারা কিছু জানতো না।
চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দেখা করলেন দোভাল
চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে দেখা করলেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। তার সঙ্গে ছিলেন অন্যান্য ব্রিকস গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টারা।
সিকিম সীমান্তে ভুটানের ডোকলামে চীনের রাস্তা বানানো নিয়ে ভারত ও চীনের মধ্যে ১ মাসের বেশি সময় ধরে বিবাদ চলছে। প্রকাশ্যে কোনও পক্ষ কিছু না বললেও দোভালের চীন সফরের প্রধান উদ্দেশ্য এ ব্যাপারে হেস্তনেস্ত করা বলে মনে করা হচ্ছে।
গত বৃহস্পতিবার ব্রিকস বৈঠকের ফাঁকে চীনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ইয়াং জিয়েচির সঙ্গে দেখাও করেন তিনি। ডোকলামে অচলাবস্থা নিয়ে বেজিং কোনও মন্তব্য না করলেও দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক সংক্রান্ত বড় সমস্যা মেটাতে এই বৈঠক হয়েছে বলে তারা তাৎপর্যপূর্ণভাবে জানিয়েছে।
ব্রিকস গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির মধ্যে ভারত ছাড়াও রয়েছে ব্র্রাজিল, রাশিয়া, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা। নানা বিষয়ে ব্রিকসের মধ্যে বোঝাপড়া বাড়াতে গতকাল সারাদিন ধরে বৈঠক হয়। তারপর সব জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টারা সাক্ষাৎ করেন চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে।
এদিন ব্রিকসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের সঙ্গে চীনা কর্মকর্তাদের বৈঠকে অবশ্য কোনও পক্ষকে করমর্দন করতে দেখা যায়নি। সূত্র : বেঙ্গলী নিউজ১৮।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ