Inqilab Logo

শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

সড়ক দুর্ঘটনায় পাবিপ্রবি’র বিজ্ঞান অনুষদের ডিন রাশেদ কবির নিহত, আহত ১০

পাবনা জেলা ও বেড়া উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০১৭, ৪:০২ পিএম

পাবনা-ঢাকা মহাসড়কের সাঁথিয়া-বেড়ার সীমান্তবর্তী সাঁথিয়া উপজেলাধীন পুন্ডরিয়া কালভার্ট ব্রিজের পাশে পাউবো’র সেচ ক্যানেলে কোচ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে গেলে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডীন রাশেদ কবির (৫৫) নিহত ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো অন্তত: ১০জন।
শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে পাবনাগামী এই কোচটি দুর্ঘটনায় পতিত। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত একটি বাসে দুপুর সাড়ে তিনটায় ঢাকা থেকে পাবনার উদ্দেশ্যে তিনি ঐ কোচে রওয়ানা হন। রাত ১২টার দিকে বাসটি ঢাকা- পাবনা মহাসড়কের বেড়া ও সাঁথিয়া উপজেলার সীমান্তবর্তী পুন্ডরিয়া ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ঢালে সেচ ক্যানেলে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই পাবিপ্রবি’র শিক্ষক রাশেদ কবির মারা যান।
সাঁথিয়া থানার ওসি আবু মো: দিলওয়ার হাসান ইনাম জানান, রাতে ঢাকা থেকে পাবনায় যাওয়ার পথে যাত্রীবাহী কোচ আল-হামরা পথিমধ্যে বেড়া উপজেলার পুন্ডরিয়া ব্রিজের কাছে পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে; কোচটি ব্রিজের নিচে খাদে সেচ ক্যানেলে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলে পাবিপ্রবি’র শিক্ষক রাশেদ কবীর নিহত হন। তাড়াতাড়ি কোচ থেকে নামতে গিয়ে অন্তত: ১০ জন কমবেশী আহত হন। খবর পেয়ে দমকল বাহিনী ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে বেড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে রাশেদ কবিরকে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঘোষণা মৃত ঘোষণা করেন। কোচের চালক, সুপারভাইজার ও হেলপার পলাতক।
দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পরপরই বেড়া থানায় ছুটে যান নিহত রাশেদ কবিরের স্ত্রী, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আওয়াল কবির জয়, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন ড. এম আব্দুল আলীমসহ অন্যান্য শিক্ষকরা।
নিহত রাশেদ কবিরের বাড়ি ঢাকার আরামবাগে। পিতার নাম ইমাম আহমেদ। তার মৃত্যুর খবরে পরিবারের স্বজন, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকর্মী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তিনি প্রথমে পাবনা সরকারী শহীদ বুলবুল কলেজে শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে পাবনা সরকারী এডওয়ার্ড কলেজে বদলী হয়ে যান। পাবনায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হলে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা দু:সময়ে তিনি বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়ে সেই অবস্থার উত্তরণ ঘটান। সকাল সাড়ে ১০ টায় তাঁর প্রথম নামাজে জানাজা পাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়। তারপর লাশ ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

তাঁর মৃত্যুতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে । তাঁর মৃত্যুতে পাবিপ্রবি’র ভিসি ড. আল-নকীব চৌধুরী , প্রো-ভিসি ড. আনোয়ারুল ইসলাম এবং বিভিন্ন অনুষদের ডীন ও শিক্ষকরা, কর্মকর্তা-কর্মচারী সমিতি নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করে তাঁর পরিবার পরিজনের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ