Inqilab Logo

সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মুহাররম ১৪৪৪

ডেইরি ফার্মারস অ্যাসোসিয়েশন খামারিরা মুনাফা করতে পারছেন না

| প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার: বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মারস অ্যাসোসিয়েশন সংগঠনটি বলছে, মাংসের দাম বাড়ায় খামারিরা বেশি মুনাফা করছেন এমন নয়। এখন খামারিরা মুনাফা করতে পারছেন না। বর্তমানে পশুর খাদ্যের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে। সিন্ডিকেট করে একশ্রেণির ব্যবসায়ী গোখাদ্যের দাম বাড়িয়েছে। এর মাধ্যমে তারা বড় অংকের মুনাফা নিয়ে যাচ্ছে। শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা বলছে সংগঠনটির নেতারা।
সংগঠনটির সভাপতি মো. ইমরান হোসেন বলেন, আপনারা বাজারে খবর নেন এই মুহূর্তে পশুর খাদ্যের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে। বাজারে বর্তমানে ৫০ কেজির এক বস্তা কুড়ার দাম ১ হাজার ১০০ টাকা থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা। ভূষির দাম ১ হাজার ২০০ টাকা থেকে ১ হাজার ৩০০ টাকা। যা আগে বিক্রি হতো সাড়ে ৪০০ টাকায়। এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে এসব খাদ্যের দাম বাড়িয়েছে।
ইমরান হোসেন বলেন, গত বছর এক কেজি গরুর মাংসের দাম ছিল ৪০০ টাকার কাছাকাছি। এখন দাম বেড়ে ৫০০ টাকার কাছিকাছি হয়েছে। দাম বাড়ার কারণে বর্তমানে গরুর মাংসের চাহিদা কমেছে। কারণ আমাদের দেশের একটি বড় জনগোষ্ঠীর পক্ষে ৫০০ টাকা কেজি দরে গরুর মাংস কিনে খাওয়া সম্ভব না। তবে সরকার যদি বাজার মনিটরিং জোরদার করে এবং মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্য বন্ধ করতে পারে তবে গরুর মাংসের দাম কমে যাবে। আমরা সাধারণ মানুষকে ৪০০ টাকার নিচে গরুর মাংস দিতে পারবো।
তিনি আরো বলেন, এবার দেশে কোরবানিযোগ্য পশু রয়েছে প্রায় ১ কোটি ১৫ লাখ ৫৫ হাজার। এর মধ্যে গরু-মহিষ আছে ৪০ লাখ। আর ছাগল-ভেড়া আছে প্রায় ৭৫ লাখ ৫৫ হাজার। যা দেশের মোট চাহিদা সম্পূর্ণভাবে পূরণ করতে সক্ষম। তাই পশু আমদানি ও চোরাইপথে পশু আসা বন্ধ করতে হবে। তা না হলে দেশের মাংস উৎপাদনকারী খামার ব্যবসায়ীরা লোকসানের সম্মুখীন হবেন। যা দেশের মাংস শিল্পকে ধ্বংস করবে। আর একটি শিল্প ধ্বংস হলে তার দায় অবশ্যই সরকারকে নিতে হবে।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মারস অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব শাহ ইমরান, সহ-সভাপতি আলি আজম শিবলী ও যুগ্ম সচিব নাসিম উল্লাহ প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ