Inqilab Logo

শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

সাবেক ছাত্রনেতা ও প্রাক্তন নেতৃবৃন্দের অনুপস্থিতিতে রামগঞ্জে বিএনপির সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু

| প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

এস এম বাবুল (বাবর) ল²ীপুর থেকে : জেলার রামগঞ্জ উপজেলায় বিএনপি’র সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমে সাবেক কমিটির নেতৃবৃন্দ ও ছাত্রদলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের আমন্ত্রন না জানিয়ে দলীয় সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন শুরু করায় তৃনমূলে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রামগঞ্জ থেকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী জেলা বিএনপির সহ সভাপতি সাবেক সফল উপজেলা চেয়ারম্যান মনির আহম্মেদ, জাতীয় পার্টি থেকে বিএনপিতে আসা মাহামুদুর রহমান মাহমুদ, ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কমিশনার হারুনুর রশিদ, রামগঞ্জ সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি আবদুর রহিমসহ অনেকই সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম অনুষ্ঠানে আমন্ত্রন পায়নি। বৃহস্পতিবার দুপরে সাবেক সংসদ সদস্য ও রামগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি নাজিম উদ্দিন আহমেদের বাসভবনে ল²ীপুর জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন সাবু সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু করেন। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও বিএনপি নেতা মোজাম্মেল হোসেন মজুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবদলের সদস্য ইমাম হোসেন, জেলা বিএনপি’র যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ ব্যাপারী, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. হাসিবুর রহমান হাসিব, রামগঞ্জ পৌর বিএনপি’র আহবায়ক জাকির হোসেন মোল্লা, উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান বাহার, পৌর বিএনপি’র সদস্য সচিব আলমগীর হোসেন, উপজেলা যুবদলের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন পলাশ, সাঃ সম্পাদক কবির হোসেন কানন, উপজেলা ছাত্রদল সভাপতি আতিকুর রহমান রিপন প্রমুখ উপস্থিত থাকলেও রামগঞ্জ উপজেলা ও পৌর বিএনপির বর্তমান ও সাবেক কমিটির অনেক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি রামগঞ্জ কলেজের সাবেক বেশ কয়েকজন ভিপি, জিএস ও এজিসএস সহ প্রাপ্তন ছাত্র নেতাদের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমের বিষয়টি জানানো হয়নি। সূত্র জানায়, রামগঞ্জ উপজেলা বিএনপিতে একাধিক গ্রæপ সক্রিয় রয়েছে। সাবেক এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী মরহুম জিয়াউল-হক-জিয়ার অনুসারী বনাম সাবেক সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দিন আহম্মেদের অনুসারীদের মাঝে দৃশ্যমান দন্ধ বিরাজমান। জিয়াপন্থি অনেক নেতাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। জিয়াপন্থিদের সাথে যাদের যোগাযোগ রয়েছে তাদেরও দলে মাইনাস হিসেবে ধরা হয়। বেশ কয়েকজনকে বহিস্কারও করা হয়েছে বিভিন্ন সময়ে। তাদেরকে বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমের বিষয়ে অবহিত করা হয়নি।
এছাড়াও জেলা বিএনপির উপদেষ্টা রামগঞ্জ উপজেলা বিএনপির প্রবীন নেতা সফি আহম্মেদ খোকা, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক শেখ মোঃ বদরুদ্দোজা, সাবেক সহ সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন, নূরনবী চেয়ারম্যান, পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি চেয়ারম্যান রফিক উল্যা পাটওয়ারী, পৌর বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র হানিফ পাটওয়ারী, সহ সভাপতি আবদুর ছাত্তার লাতু, সাবেক পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিরন, শেখ কামরুজ্জামান, সাবেক জিএস মনোয়ার হোসেন, সাবেক ভিপি ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, সাবেক ভিপি শাহ আলম, সাবেক জিএস লকিয়ত উল্যা। সাবেক ছাত্রনেতা সায়েদ আহম্মেদ দাদু, লোকমান হোসেন পাটওয়ারী, আবুল হাসেন, আবদুল্লা রকি, যুবদলের সাবেক সভাপতি মনির হোসেন, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মোরশেদ আলমসহ ছাত্রদল, যুবদল, বিএনপি-র সাবেক ও বর্তমান কমিটির গুরত্বপূর্ন নেতৃবৃন্দদের না জানিয়ে রামগঞ্জে বিএনপি’র সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু করায় তৃনমূলে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে।
এছাড়া রামগঞ্জ শহর থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দুরে সাবেক সাংসদ ও উপজেলা বিএনপির সভাপতি নাজিম উদ্দিন আহম্মেদ এর বাসভবনে অনেকটা দায়সারা গোছের অনুষ্ঠান করার কারনেও বর্তমান কমিটির অনেক নেতাকর্মীই উপস্থিত হননি।
এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে দলকে কোনঠাসা করতে বর্তমান সভাপতি নাজিম উদ্দিন আহম্মেদ দলীয় কার্যক্রম উপজেলা শহরে না করে শহর থেকে ৫ কিলোমিটার দুরে অজপাড়া গায়ে ভাদুর গ্রামে করে আসছেন। সেখানে যাওয়ার পথে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের হাতে বিএনপি দলীয় নেতাকর্মীদের হাতে লাঞ্চিত হতে হয়।
পৌর বিএনপির সভাপতি রফিক উল্যা চেয়ার‌্যান বলেন, বিএনপির জন্মলগ্ন থেকে জিয়াউর রহমানের সাথে রাজনীতি করে এসেছি। বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে রাজপথে থেকেছি। নাজিম উদ্দিন দলের দায়িত্বে আসার পর থেকে দলীয় কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে। দলের সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হয়েছে দূঃসময়ের শত শত নেতাকর্মী সংবাদ পায়নি। হয়তো অনেক নেতাকর্মীকে সদস্যপদ নবায়ন করতে দেওয়া হবেনা।
জেলা বিএনপির সহ সভাপতি, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান, পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ ও আগামী জাতীয় নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী মনির আহমেদের কাছে জানতে চাইলে দলের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু সংক্রান্ত বিষয়ে তিনি অবগত নয় বলে জানান।
উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান বাহার ভিপি জানান, জেলা নেতৃবৃন্দের পরামর্শক্রমে ইউনিয়ন বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্র্মীদের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ