Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রাশেদকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে হলি আর্টিজান মামলার চার্জশিট-মনিরুল ইসলাম

৬ দিনের রিমান্ডে রাশেদ

| প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : নব্য জেএমবির রাশেদ ওরফে র‌্যাশকে জিজ্ঞাসাবাদের পর হলি আর্টিজান হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলার চার্জশিট দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। গতকাল শনিবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)’র মিড়িয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, রাশেদ হলি আর্টিজান হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী। তাদের গ্রেফতারের পর তদন্তের কাজ এখন প্রায় শেষ পর্যায়ে। সে যদি আদালতে জবানবন্দী দেয় বা নাও দেয় তার থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারেই চার্জশিট প্রস্তুত করা হবে। রাশেদকে ৬দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। সংবাদ সম্মেলনে মনিরুল ইসলাম বলেন, হলি আর্টিজান হামলায় জড়িত জঙ্গিরা রাশেদের কাছ থেকে গ্রেনেড চালানোর প্রশিক্ষণ নেয়। রাশেদ তাদের বুড়িগঙ্গা নদীর পাশে প্রশিক্ষণ দেয়। উল্লেখ্য, শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টায় নাটোর থেকে জঙ্গি রাশেদকে আটক করে পুলিশ। মনিরুল ইসলাম বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান ও গোয়েন্দা তৎপরতার কারণে একের পর এক জঙ্গি সদস্য গ্রেফতার হওয়ার পর নব্য জেএমবি সদস্যদের পারস্পরিক বিশ্বাস ও আস্থার ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এজন্য বিশ্বাসঘাতক হিসেবে শনাক্ত করে জঙ্গি নেতারা তাদের অন্তত ৫ জন সদস্যকে নিজেরাই হত্যা করেছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মনিরুল ইসলাম বলেন, হলি আর্টিজান হামলার পর বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন এই হামলা নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন অ্যানালাইসিস প্রতিবেদন তৈরি করেছে। এরমধ্যে আনসারুল ইসলাম তাদের ব্যাখ্যায় বলেছে, হলি আর্টিজানে হামলাকারীরা জিহাদের প্রতি এদেশের মানুষের যেমন ভালবাসা ছিল সেটি নষ্ট করে দিয়েছে। এটা কোনও জিহাদের অংশ না। এরা জিহাদকারীদের মন-মানসিকতা নষ্ট করে দিয়েছে। হলি আর্টিজান হামলার সঙ্গে আন্তর্জাতিকভাবে কোনও দেশ, দল বা সংস্থার সম্পৃক্ততা আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তদন্ত এখনও শেষ হয়নি। তদন্ত চলছে। আইএস’র যেমন নির্দিষ্ট কোনও আইডিওলজি নেই, পুরনো বা নব্য জেএমবির তেমন কোনও নির্দিষ্ট আইডিওলজি নাই। এরা ভবিষ্যৎবাণী দিয়ে বিভিন্ন মানুষকে বিশেষ করে যারা ধর্ম সম্পর্কে কম জানেন তাদের মধ্যে এক ধরণের উন্মাদনা সৃষ্টি করতো। মূল ঘরানার জেএমবি আর নেই। নব্য জেএমবি বা অন্যান্যরা এখন দল গোছানোর কাজে মনোযোগী। তাদের অপারেশন বা হামলার প্রস্তুতি নেই। এখন তারা মূলত সদস্য রিক্রুট করার কাজে বেশি মনোযোগী। হাদিসুর রহমান ওরফে সাগরও একটা গ্রুপ তৈরির চেষ্টা করছেন বলেও গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য আছে। প্রসঙ্গত, হলি আর্টিজান হামলা মামলার অন্যতম আসামি হাদিসুর রহমান সাগরকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, হাদিসুর রহমান দেশের ভেতরেই অবস্থান করছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
৬ দিনের রিমান্ডে
গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার মামলায় গ্রেফতারকৃত রাশেদকে ছয় দিনের রিমান্ডে নেয়ার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। গতকাল শনিবার ঢাকার মহানগর হাকিম নুরুন নাহার ইয়াসমীন এ আদেশ দেন। এর আগে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাউন্টার টেররিজম বিভাগের পরিদর্শক হুমায়ূন কবির তাঁকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চান। আবেদনে বলা হয়, এ হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারীদের একজন তিনি। ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটনের জন্য তাঁকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা জরুরি। শুনানি শেষে আদালত ছয় দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালত সূত্র বলছে, আসামির পক্ষে আদালতে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আর্টিজান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ