Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ আশ্বিন ১৪২৭, ০৬ সফর ১৪৪২ হিজরী

হকির নির্বাচন- ২২ ক্লাবের বিবৃতি

| প্রকাশের সময় : ৬ আগস্ট, ২০১৭, ১২:০০ এএম


স্পোর্টস রিপোর্টার : বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের নির্বাচনকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠছে দেশের ক্রীড়াঙ্গন। নির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে উত্তেজনা যেন ততই বাড়ছে। আগামী ২৭ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে হকি ফেডারেশনের নির্বাচন। এই নির্বাচনে সর্বশেষ কমিটির দুই সহ-সভাপতি আব্দুর রশিদ শিকদার ও খাজা রহমতউল্লাহ সাধারণ সম্পাদক পদে লড়বেন। রশিদ শিকদার প্রচার-প্রচারণায় এগিয়ে থাকলেও অনেকটাই নীরব রহমতউল্লাহ। জানা গেছে, তিনি নাকি এতদিন হাইকমান্ডের গ্রিন সিগন্যালের অপেক্ষায় ছিলেন। অবশেষে সেই সিগন্যাল নাকি রহমতউল্লাহ পেয়েছেন। ঢাকা আবাহনী লিমিটেড তাকে শেষ পর্যন্ত সমর্থন দিয়েছে। গেল ৩ আগস্ট আবাহনী এক সভা করেছে। সেই সভায় তারা পেয়েছে জেলা ও বিভাগীয় ক্রীড়া সাধারণ সম্পাদকদের সংগঠন ফোরামকে। এ সভাতে ঐক্যমতের কমিটি গঠনের লক্ষ্যে তিনজনকে মনোনীত করেছেন ফোরাম নেতৃত্ববৃন্দ। এদিকে সর্বশেষ কমিটিকে ব্যর্থ উল্লেখ্য করে ঐক্যমতের কমিটি চায় রশিদ শিকদারের সমর্থনে থাকা ক্লাবগুলো। গতকাল প্রিমিয়ার, প্রথম বিভাগ ও দ্বিতীয় বিভাগের ২২টি ক্লাবের ক্লাউন্সিলররা ঐক্যবদ্ধভাবে একটি কমিটি গঠনের দাবি জানিয়ে যৌথ বিবৃতি দেয়। যেখানে উল্লেখ থাকে- ‘হকি খেলার মানের অবনতি রোধে এখনই হকি ফেডারেশনের বর্তমান নেতৃত্ব পরিবর্তন করে নতুন এবং মাঠ, মাঠের বাইরে হকি খেলার পরিক্ষিত কর্মীদের নিয়ে ঐক্যমতের ভিত্তিতে আগামী চার বছরের জন্য একটি নির্বাচিত নির্বাহী কমিটি গঠনের ব্যবস্থা করবেন সংশ্লিষ্টরা। হকি খেলার মানোন্নয়নে আমাদের এই সুনিদিষ্ঠ প্রস্তাবটি বাস্তবায়নের জন্য দেশের ক্রীড়াঙ্গনের নীতিনির্ধারকদের কাছে প্রতিশ্রæতির প্রত্যাশা করছি’। গত নির্বাচনের আগেও ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলো ঢাকার ক্লাবগুলো। পরে তারা খাজা রহমতউল্লাহর বিপক্ষে অবস্থান নেয়। যে কারণে গত চার বছরে প্রিমিয়ার লিগ টার্ফে গড়িয়েছে মাত্র দুটি। তার মধ্যে একটি লিগে অংশ নেয়নি ঢাকা মেরিনার ইয়াংস, মোহামেডান, বাংলাদেশ স্পোর্টিং এবং ওয়ারী ক্লাব। ওয়ান্ডারার্স বিদ্রোহী কাতারে থাকলেও তারা লিগ খেলেছে। শেষ পর্যন্ত ক্লাবগুলোর দাবির মুখে সাধারন সম্পাদকের পদ ছাড়তে বাধ্য হন খাজা রহমতউল্লাহ। এরপরই মাঠে ফিরে বিদ্রোহীখ্যাত ক্লাবগুলো। তাদের অংশগ্রহণে সর্বশেষ লিগে চ্যাম্পিয়ন হয় মেরিনার। এবারও বেশীরভাগ ক্লাব সাধারন সম্পদক পদে চাচ্ছে না খাজা রহমতউল্লাহকে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন