Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনে আক্বিদা ও আমলের বিকল্প নেই : ছারছীনার পীর ছাহেব

আজ আখেরী মোনাজাত

প্রকাশের সময় : ১২ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নেছারাবাদ সংবাদদাতা : আমিরে হিয্বুল্লাহ, মুজাদ্দিদে যামান ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.) বলেছেন, মুমীন মুসলমানের ঈমানের পরিপূর্ণতা লাভ করবে তখনই যখন তাঁর আক্বিদা হবে বিশুদ্ধ এবং জীবন হবে নেক আমলে ভরপুর। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের সন্তুষ্টি, নৈকট্য ও তাঁর দিদার লাভের জন্য সহিহ আক্বিদা এবং নেক আমলের বিকল্প নেই। এক্ষেত্রে একটি বিষয় লক্ষ রাখতে হবে- শুধু নেক আমল করলেই হবে না, নেক আমলকারীকে দেখতে হবে তার মধ্যে রিয়া বা লৌকিকতা আছে কিনা। লোক দেখানো ইবাদত শিরকের অন্তর্ভুক্ত, যা মহান আল্লাহর কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। ইবাদত বা আমলের মধ্যে রিয়া বা লৌকিকতা দূর করে খাঁটি ইবাদত করতে চাইলে প্রত্যেক মুসলমানের উচিত ইসলামী শরীয়তের পাশাপাশি মারেফতের কঠোর অনুশীলন করা। আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি আর এর জন্য প্রয়োজন হক্কানী পীর-মাশায়েখদের ছোহবতে জীবন অতিবাহিত করা। কেননা আল্লাহওয়ালাদের ছোহবত ছাড়া আল্লাহ ও তাঁর রসূল (স.) এর সন্তুষ্টি এবং ভালোবাসা অর্জন করা সম্ভব নয়। গতকাল শুক্রবার পিরোজপুর জেলার নেছারবাদ উপজেলার সন্ধ্যা নদীর তীরে অবস্থিত ছারছীনা দরবার শরীফে তিন দিনব্যাপী ১২৬তম বার্ষিক ঈছালে ছাওয়াব মাহফিলের ২য় দিন বাদ জুমা হযরত পীর ছাহেব একথা বলেন। মাহফিলের ২য় দিন বিশেষ মেহমানদের মধ্যে তাশরিফ আনেন শিল্পমন্ত্রী আলহাজ আমির হোসেন আমু, বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য তালুকদার মো. ইউনুস (এমপি), পিরোজপুর-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ এ.কে.এম.এ. আউয়াল (এমপি), বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার জনাব মো. গাউস, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার, পটুয়াখালীর জেলা জজ, পিরোজপুর জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, দৈনিক ইনকিলাবের নির্বাহী সম্পাদক কবি মাওলানা রুহুল আমিন খান, বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ সাঈদুর রহমান রিন্টু, নেছারবাদ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মুনির, পৌর মেয়র গোলাম কবীর, স্থানীয় সরকারি বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা প্রমুখ। মাহফিলের ২য় দিন গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন-ছারছীনার হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা ও বাংলাদেশ জমইয়তে হিয্বুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমির আলহাজ শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দিন আহমদ হুসাইন, ছারছীনার পীর ছাহেব কেবলার বড় জামাতা আলহাজ মাওলানা মির্জা নূরুর রহমান বেগ, মাওলানা মাহমুদুম মুনীর হামীম, হাফেজ মাওলানা বোরহান উদ্দিন ছালেহী, মাওলানা শামসূল আলম মোহেব্বী প্রমুখ। শিল্পমন্ত্রী আলহাজ আমির হোসেন আমু বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে ছারছীনা দরবারের নিবিড় সম্পর্ক ছিল। তিনি এ দরবারের মরহুম পীর ছাহেব মুজাদ্দিদে যামান শাহ্ সূফী আবু জাফর সালেহ (রহ.) এর সাথে তাঁর গভীর সম্পর্ক ছিল, যার প্রমাণ আমি নিজে। তিনি প্রায়ই মরহুম পীর ছাহেবের কাছে দোয়া চাইতেন, পরামর্শ নিতেন। তিনি আরও বলেন রাজনীতি ও ধর্ম এক নয়। আমি এ দরবারে ১৯৭৩ সনে খাদ্যমন্ত্রী থাকাকালীন আসছিলাম। আবার এখন এসেছি ভবিষ্যতেও আসব ইনশাআল্লাহ। আমি এ দরবারকে ভালোবাসি এখানে আসলে মনে প্রশান্তি লাভ করি। হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা ও বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমির আলহাজ শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দিন আহমদ হুসাইন বলেন, কুরআন-সুন্নাহর আলোকে একটি হক দরবার। এ দরবারের প্রতিষ্ঠাতা কুত্ববুল আলম আল্লামা শাহ্ সূফী নেছারুদ্দীন আহমদ (রহ.) যেই উদ্দেশ্যে, আশা আকাক্সক্ষা নিয়ে এ দরবার প্রতিষ্ঠা করেছেন সেভাবেই প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই পরিচালিত হচ্ছে এবং এভাবেই ভবিষ্যতেও পরিচালিত হবে ইনশাআল্লাহ। আমরা দলীয় রাজনীতি করি না, তবে দ্বীন ও ইসলামের স্বার্থে দলীয় রাজনীতির ঊর্ধ্বে থেকে কাজ করাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। আজ শনিবার তিন দিনব্যাপী মাহফিলের শেষ দিন। বাদ জোহর দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আখেরী মুনাজাত পরিচালনা করবেন আমিরে হিয্বুল্লাহ ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব কেবলা আলহাজ হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.)। ইতোমধ্যে মাহফিল ময়দান ও এর আশপাশের প্রায় দুই বর্গকিলোমিটার এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে এবার মাহফিলে সর্বোচ্চ লোকের সমাগম ঘটবে এবং পূর্বের ইতিহাসকে অতিক্রম করবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনে আক্বিদা ও আমলের বিকল্প নেই : ছারছীনার পীর ছাহেব
আরও পড়ুন