Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ০৪ কার্তিক ১৪২৪, ২৮ মুহাররম ১৪৩৯ হিজরী

ময়মনসিংহে আ’লীগ নেতাকে পিটিয়েছে মেয়র সুমনের ক্যাডাররা

| প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০১৭, ১২:০০ এএম


বিশেষ সংবাদদাতা, ময়মনসিংহ ব্যুরো : ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আক্তার হোসেনকে (৫২) বেদম পিটিয়েছে স্থানীয় পৌরসভার মেয়র ইকবাল হোসেন সুমনের ক্যাডাররা।
শনিবার দুপুরে উপজেলার ছোট চামড়াগুদাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ক্যাডারদের সশস্ত্র মহড়ায় আহত ওই আওয়ামীলীগ নেতা নিজ বাড়িতেই অবরুদ্ধ অবস্থায় চিকিৎসক নিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেছেন।
স্থানীয় ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আক্তার হোসেন জানান, দুপুরে তিনি বাড়ি থেকে বের হয়ে উপজেলা সদরের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় স্থানীয় পৌর মেয়র ইকবাল হাসান সুমনের ক্যাডার তাজমুল ও টিটু’র নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জন তার গতিরোধ করে। এ সময় তাকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে।
তিনি জানান, পৌর মেয়রের ক্যাডাররা বাড়ির আশেপাশে অবস্থান নিয়ে সশস্ত্র মহড়া দিচ্ছে। তাদের ভয়ে আমি হাসপাতালেও চিকিৎসা নিতে পারছি না। বাড়িতে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছি।
প্রবীণ এ আওয়ামীলীগ নেতার অভিযোগ, আওয়ামীলীগের ঘোর দুর্দিনে মেয়রের লোকজন বিএনপি করতো। আজ এরাই পৌরসভা নিয়ন্ত্রণ করে। পৌর মেয়রের এসব ক্যাডাররা স্থানীয় সংসদ সদস্যের শেল্টার নিয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, গফরগাঁওয়ের আক্তার হোসেন স্থানীয় আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে সাবেক পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট কায়সার আহমেদের রাজনীতি করেন। স্থানীয় সংসদ সদস্যের বিশেষ আনুকূল্য রয়েছে বর্তমান মেয়রের প্রতি। মূলত এ কারণেই শত্রæতার জেরে তাকে বেধড়ক পেটানোর ঘটনা ঘটেছে।
এ বিষয়ে সাবেক পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট কায়সার আহম্মেদ বলেন, আক্তার হোসেন আওয়ামীলীগের দুর্দিনের প্রবীণ নেতা। তিনি আমাদের প্রয়াত নেতা আলতাফ হোসেন গোলন্দাজের সহকর্মী ছিল। তার উপর এ হামলার ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।
জানতে চাইলে গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম জানান, মারমারির ঘটনা শুনেছি। তবে এ সংক্রান্ত লিখিত কোন অভিযোগ পাইনি। পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 


Show all comments
  • S. Anwar ১৩ আগস্ট, ২০১৭, ২:৫৭ পিএম says : 0
    নিজেরা নিজেরাইতো। মাঝে মাঝে এক-আধটুক হাতাহাতির মশকারাতো হতেই পারে। পরে ঠিক হয়ে যাবে। বিএনপি-র মেয়র হলে এতোবড় বেয়াদবীর সাহস পেতো না।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।