Inqilab Logo

শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচন লড়াইয়ে আ’লীগ-বিএনপি

প্রকাশের সময় : ১৩ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মালেক মল্লিক : সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন আগামী ২৩ ও ২৪ মার্চ। বিগত বছরের মতো এবার নির্বাচনে বিএনপি (জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম) সমর্থিত নীল প্যানেলে ও সরকার সমর্থিত আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা (সম্মিলিত সমন্বয় পরিষদ) সাদা প্যানেলে নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেছেন। দুই প্যানেলের বাইরে সভাপতি ও সম্পাদক পদে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন আরো তিন প্রার্থী। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে এক ধরনের নির্বাচনী আমেজ বিরাজ করছে। আদালত থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে টুইটারে নিজ প্যানেলে প্রার্থীর ভোট চেয়ে নানা প্রচারণায় নেমেছেন নির্বাচনের প্রার্থীরা। দুই প্যানেলই এবার নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন। বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন বিজয়ী হতে দুই দলই মরিয়া হয়ে উঠছে।
সুপ্রিম কোর্ট বারের অফিস সূত্র জানায়, বরাবরের মতো এবারো প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছে যথাক্রমে আওয়ামী লীগ সমর্থিত (সাদা) প্যানেল এবং বিএনপি সমর্থিত (নীল) প্যানেল। তবে এবার সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সভাপতি পদে একজন এবং সম্পাদক পদে দুইজন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বারের সুপারিনটেনডেন্ট (তত্ত¡াবধায়ক) বলেন, আজ রোববার নির্বাচনের প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। আর আগামী ২৩ ও ২৪ মার্চ নির্বাচন হবে। সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির ১৪টি পদে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে সাতটি সম্পাদকীয় ও সাতটি নির্বাহী সদস্যের পদ রয়েছে। সরেজমিন দেখা গেছে, সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচনে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। প্রতিটি প্যানেলের পক্ষে নিজ নিজ সমর্থকরা ভোট চাচ্ছেন। প্যানেল পরিচিতি ও সভাপতি এবং সম্পাদকের ব্যক্তিগত পরিচিতি, বারের অতীতের উন্নয়ন কর্মকাÐে অবদান ও নির্বাচনে জয়ী হলে উন্নয়নের প্রতিশ্রæতির লিফলেট বিতরণ করেন প্রতিটি প্যানেলের সমর্থকরা। অন্যান্য বছরের চেয়ে এবারের নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন উভয় পক্ষের আইনজীবীরা।
সরকার সমির্থত সাদা প্যানেলের একজন প্রার্থী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সবচেয়ে বড় জেলা ঢাকা বারে নির্বাচনে সরকার সমর্থকরা বিজয়ী হয়েছে। সাধারণ আইনজীবীদের সমর্থন বাড়ছে সরকারপন্থীদের ওপর। তাই এবার সুপ্রিম কোর্টেও বারে আমরা বিপুল ভোটে জয়ী হবো। এদিকে, বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের প্রার্থীরা জানান, তাদের প্যানেলের প্রার্থী অনেক চিন্তাভাবনা করে দেয়া হয়েছে। যারা সাধারণ আইনজীবী পছন্দ করেন, কোনো ধরনের বিতর্ক নেই এমন আইনজীবীদের নিয়ে এবারের প্যানেল দেয়া হয়েছে। আমরা আশাবাদী গত বছরের মতো এবারো বিজয়ী হবো। সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচনের দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাবিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিশেষ নজর রাখছেন বলেও দলীয় সূত্রে জানা যায়।
আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা সাদা প্যানেলে নির্বাচনে লড়ছেন সভাপতি পদে লড়ছেন সিনিয়র আইনজীবী ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সম্পাদক পদে আজাহার উল্লাহ ভূঁইয়া সাদা প্যানেলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এ প্যানেলে সহ-সভাপতি পদে সুরাইয়া বেগম, তাহিরুল ইসলাম, ট্রেজারার পদে রমজান আলী, সহ-সম্পাদক পদে শেখ সিরাজুল ইসলাম, এ কে এম হাসান সুমনসহ কার্যনির্বাহী সদস্য পদে সাতজন প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। অন্যদিকে, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম নীল প্যানেলে সভাপতি পদে প্রার্থী রয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সভাপতি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও বারের তিনবারের সম্পাদক দলের যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকেনের নেতৃত্বাধীন নীল প্যানেল তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। প্যানেলে সহ-সভাপতি পদে ফাহিমা নাসরিন মুন্নি, মোহাম্মাদ মোস্তফা, ট্রেজারার পদে নাসরিন আক্তার বিউটি, সহ-সম্পাদক পদে মো: শহিদুজ্জামান, ইউসুফ আলীসহ সাতজন কার্যনির্বাহী সদস্যপদে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন।
এছাড়াও এ নির্বাচনে সভাপতি পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী ড. ইউনুছ আলী আকন্দ এবং সম্পাদক পদে আরো দুজন আইনজীবী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। গত ২৯ ফেব্রæয়ারি সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনে ২০১৫-১৬ বর্ষে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। বারের নির্বাচন-সংক্রান্ত সাব-কমিটির আহŸায়ক হিসেবে অ্যাডভোকেট হারুনুর রশীদের নেতৃত্বে সাত সদস্যের কমিটি দায়িত্ব পালন করবে। নির্বাচনে সুপ্রিম কোর্টের মোট পাঁচ হাজার ২৮ জন আইনজীবী ভোট দেবেন। ২৩ ও ২৪ মার্চ সকাল ১০টা থেকে মাঝে এক ঘণ্টা বিরতি দিয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচন লড়াইয়ে আ’লীগ-বিএনপি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ