Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কিডনী রোগে মুখের সমস্যা

| প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০১৭, ১২:০০ এএম

শতকরা নব্বই ভাগ ক্ষেত্রে কিডনী রোগে মুখের বিভিন্ন লক্ষণ পরিলক্ষিত হয়ে থাকে। কিডনী রোগের ক্ষেত্রে স্টোমাটাইটিস, মিউকোসাইটিস বা মিউকাস মেমব্রেনের প্রদাহ, গøসাইটিস বা জিহŸার প্রদাহ। এর ফলে জিহŸা ও মিউকাস মেমব্র্রেনের ব্যাথা ও জ্বালাপোড়া অনুভূত হতে পারে। কিডনী রোগ যখন অগ্রসরমান অবস্থায় থাকে তখন মুখের মিউকোসার রং ফ্যাকাসে হয়ে থাকে নরমোসাইটিক নরমোক্রমিক এনিমিয়া বা রক্তস্বল্পতার কারণে। এটি হয়ে থাকে ইরাইথ্রোপোয়েটিন উৎপাদন কমে যাওয়ার কারণে। রক্ত স্বল্পতার কারণে কিডনী রোগে রোগীরা বেশ দুর্বলতা অনুভব করে এবং কাজের গতি অনেক কমে যায়। রক্ত স্বল্পতার কারণে মুখে ঘাঁ সহ শরীরে নানাবিধ সমস্যা দেখা দিতে পারে। সার্জিক্যাল চিকিৎসার সময় কিডনী রোগীদের রক্তে হিমোগেøাবিনের মাত্রা অবশ্যই দেখে নিতে হবে। কিডনী রোগীদের ক্ষেত্রে দাঁত ও মুখের ব্যাথায় সব ধরণের ব্যাথানাশক ঔষুধ দেওয়া যায় না। প্যারাসিটামল জাতীয় ঔষুধ দ্বারা যদি ব্যাথা না যায় তাহলে ট্রামাডল জাতীয় ঔষুধ সেবন করা উচিত। অগ্রসরমান কিডনী রোগে মুখের লালায় যদি ইউরিয়া জমা হয় তাহলে শ্বাসপ্রশ্বাস নেওয়ার সময় অ্যামোনিয়ার মতো গন্ধ পাওয়া যায়। শিশুদের ক্ষেত্রে এনামেল হাইপোপ্লাসিয়া হতে পারে ক্যালসিয়াম এবং ফসফেট মেটাবলিজম এর অসুবিধার কারণে। অগ্রসরমান কিডনী রোগের ক্ষেত্রে মাঝে মাঝে রুট ক্যানেল চিকিৎসা করার সময় দাঁতের পাল্প চেম্বার সংকীর্ণ দেখা যায়। কিডনী রোগীদের জেরোসটমিয়া বা শুষ্ক মুখ দেখা যায় মুখের ফুইড ভারসাম্য পরিবর্তনের কারণে। শুষ্ক মুখের কারণে দন্তক্ষয়, স্বাদের পরিবর্তন, ক্যান্ডিডোসিস এবং ক্ষত দেখা দিতে পারে। সিরাম ক্যালসিয়াম ফসফেট উৎপাদনে পরিবর্তন বা তারতম্যের কারণে রোগীর দাঁতে পাথর বেশী হতে পারে। তবে দাঁতে পাথর থাকলেই কিডনী রোগীদের সব সময় স্কেলিং করা ঠিক নয়। খুব জরুরী না হলে সার্জিক্যাল কাজ থেকে বিরত থাকা ভাল। রক্তে ইউরিয়া নাইট্রোজেন এর লেভেল বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে ইউরেমিক স্টোমাটাইটিস হতে পারে। কিডনী যখন রক্তে ক্যালসিয়াম ও ফসফরাসের পরিমাণ বা মাত্রা ঠিক রাখতে পারে না তখন রেনাল অস্টিওডিসট্রফি বা হাড়ের রোগ দেখা দিতে পারে। দাঁত তোলার পর ঘাঁ শুনানোর ক্ষেত্রে অস্বাভাবিকতা পরিলক্ষিত হতে পারে । অগ্রসরমান কিডনী রোগীদের ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে যেন চিকিৎসা চলাকালে বেশী রক্তপাত না হয়।

ষ ডাঃ মোঃ ফারুক হোসেন
মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
মোবাইল ঃ ০১৮১৭৫২১৮৯৭



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ