Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৫ আশ্বিন ১৪২৪, ২৮ যিলহজ ১৪৩৮ হিজরী
শিরোনাম

রেকর্ড রেমিট্যান্স আগস্টে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

 ঈদকে কেন্দ্র করে বেড়েছে রেমিট্যান্স (প্রবাসী আয়)। সদ্যসমাপ্ত আগস্টে প্রবাসীরা দেশে ১৪১ কোটি ৮৫ লাখ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। যা বিগত ১৪ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে ২০১৬ সালের জুনে প্রবাসীরা ১৪৬ কোটি ৫৮ লাখ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা বলেন, ঈদের আগে মানুষের খরচ বেড়ে যায়। পশু কোরবানি ও পরিবার নিয়ে ঈদ উদযাপনের লক্ষ্যে বেশি অর্থ পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। ফলে রেমিট্যান্স আহরণ বেড়েছে।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, আগস্টে প্রবাসীরা ১১৪১ কোটি ৮৫ লাখ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন। আর তা হলো চলতি (২০১৭-১৮) অর্থবছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। গত জুলাইয়ে রেমিট্যান্স এসেছিল ১১১ কোটি ৫৫ লাখ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ এক মাসের ব্যবধানে রেমিট্যান্স পাঠানোর পরিমাণ বেড়েছে ৩০ কোটি মার্কিন ডলার (২১ শতাংশ)। কোরবানির ঈদের কারণে রেমিট্যান্সের পরিমাণ বেড়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। রেমিট্যান্সের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গত চার বছরের মধ্যে দেশে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছে। সে সময় রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ৫৩১ কোটি ৬৯ লাখ মার্কিন ডলার। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে প্রবাসীদের রেমিট্যান্স পাঠানোর পরিমাণ ছিল এক হাজার ২৭৬ কোটি ৯৪ লাখ মার্কিন ডলার।
দেশের কার্যরত বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে আগস্টে প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ৯৯ কোটি ৮৮ লাখ মার্কিন ডলার। এর পরে রয়েছে রাষ্ট্রায়াত্ত¡ ব্যাংকগুলো। এসব ব্যাংকের মাধ্যেমে রেমিট্যান্স এসেছে ৩৯ কোটি ৫১ লাখ মার্কিন ডলার, বিশেষায়িত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে এক কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার এবং বিদেশি মালিকানাধিন বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে এক কোটি ২৮ লাখ মার্কিন ডলার সমপরিমাণ রেমিট্যান্স।
এদিকে, একক ব্যাংক হিসেবে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স এসেছে বেসরকারি খাতের ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের মাধ্যমে। এ ব্যাংকটির মাধ্যমে ৩০ কোটি ৪৯ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছে। রেমিট্যান্স আহরণে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাষ্ট্রায়াত্ব অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড। এ ব্যাংকটির মাধ্যমে আগস্টে রেমিট্যান্স এসেছে ১৩ কোটি ৩৩ লাখ মার্কিন ডলার। এছাড়া সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে ১১ কোটি ২০ লাখ ডলার, জনতা ব্যাংকের মাধ্যমে ৯ কোটি ৩০ লাখ ডলার, ডাচ বাংলা ৭ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার ও ন্যাশনাল ব্যাংকের মাধ্যমে ৪ কোটি ৯৯ লাখ ডলারের কিছু বেশি রেমিট্যান্স এসেছে।
২০১৬ সালে দেশে ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স এসেছে এক হাজার ৩৬১ কোটি মার্কিন ডলার। যা ২০১৫ সালে ছিল এক হাজার ৫৩১ কোটি মার্কিন ডলার। সে হিসেবে এক বছরের ব্যবধানে রেমিট্যান্স কমেছে ১৭০ কোটি ৬১ লাখ মার্কিন ডলার বা ১১ দশমিক ১৪ শতাংশ। টাকার অংকে যার পরিমান দাঁড়ায় প্রায় সাড়ে ১৩ হাজার কোটি টাকা।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।