Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ মাঘ ১৪২৭, ০৭ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

অ্যাবের দিল্লি সফর কৌশলগত অংশিদারিত্ব বাড়াতে ভারত-জাপান ঐকমত্য

| প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : দুই এশীয় গণতান্ত্রিক শক্তি ভারত ও জাপান কৌশলগত অংশিদারিত্ব বাড়ানোর ব্যাপারে ঐকমত্য পোষণ করেছেন। ভারত সফররত জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে গত বৃহস্পতিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, আমাদের 

এই সম্পর্ক কেবল দ্বিপাক্ষিক পরিমন্ডলে সীমাবদ্ধ নয়। আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলেও দিল্লি-টোকিও উন্নত সম্পর্ক এবং প্রভাব বিদ্যমান। যৌথ সংবাদ সম্মেলনে মোদী উল্লেখ করেন, ভারতের দ্রæত উন্নয়নে জাপান তো শরিক হবেই, একই সঙ্গে সন্ত্রাসবাদ, পরমাণু শক্তির আস্ফালন এবং অন্য যেকোনো আন্তর্জাতিক চ্যালেঞ্জের মোকাবিলায় ভারত-জাপান হাত মিলিয়ে কাজ করবে।
আর লস্কর-ই-তৈয়বা, জইশ-ই-মোহাম্মদ এর মতো জঙ্গি সংগঠনের বিরুদ্ধে যৌথ লড়াইয়ের কথাও ঘোষণা করেন তারা।
অন্যদিকে, দুই দেশের মধ্যে ১৫টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে। আর উত্তর
কোরিয়া যেভাবে পরমাণু অস্ত্র বানাচ্ছে এবং ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ছে, কঠোরতম ভাষায় তার নিন্দা করেন দুই নেতা। ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ভারত ও জাপান হাত মিলিয়ে কাজ করবে এবং সামরিক সহযোগিতা আরও বাড়াবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।


ফিলিপাইনে সহিংস বিক্ষোভ হলে মার্শাল ল’ জারির ঘোষণা
ইনকিলাব ডেস্ক : ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে বলেছেন, তার বিরুদ্ধে কম্যুনিস্ট ও অন্যান্য বামপন্থী দলগুলো যে ব্যাপক বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে তা সহিংস রূপ নিলে এবং দেশে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি করলে তিনি আগামী সপ্তাহে দেশব্যাপী মার্শাল ল’ জারি করতে পারেন। তার প্রতিরক্ষা সচিব গতকাল শুক্রবার এ কথা জানান। প্রতিরক্ষা সচিব ডেলফিন লরেনজানা সাংবাদিকদের বলেন, ‘তিনি (প্রেসিডেন্ট) বলেছেন, বামপন্থী দলগুলো যদি ব্যাপক বিক্ষোভ করার চেষ্টা করে, যদি রাজপথে আগুন জ্বালাতে শুরু করে, তাহলে দেশ বিপর্যস্ত হয়ে পড়বে, তখন আমি মার্শাল ল’ জারি করতে পারি।’ এএফপি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ