Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

জবিতে ভর্তি পরীক্ষার্থীকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়

| প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম


জবি সংবাদদাতা : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) বি ইউনিটে পরীক্ষা দিতে আসা এক শিক্ষার্থীকে অপহরণ করে মুক্তিপন আদায় করেছে অপহরন চক্র। বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় গেইটের সামনে থেকে ওই ছাত্রকে অপহরন করে ভর্তি বাণিজ্যের সাথে জড়িত ওই চক্র। অপহরণ চক্র ওই ছাত্রকে আটকে রেখে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপন দাবি করে। পরে অপহরনকারী চক্র ১০ হাজার টাকা আদায় করে ওই ছাত্রকে ছেড়ে দেয়।
কোতয়ালি থানা পুলিশ এবং অপহরনের শিকার নাহিদ হোসেন ইমন সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহাগ নামে তার এক প্রতিবেশি বন্ধুর সাথে যোগাযোগ করে নাহিদ। বি ইউনিটে ভর্তির জন্য ঢাকা আসে বুধবার সকাল ৬টার দিকে। সোহাগ তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ইউনিটে ভর্তি করিয়ে দিতে পারবে বলে ম্যাসেনজারের মাধ্যমে যোগাযোগ করে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ডেকে আনে। পরে তাকে সকাল ৯ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় গেটে অবস্থান করতে বলে। এই সময় হঠাৎ করে অপহরনকারী চক্রের চার সদস্য দুইটি হোন্ডা নিয়ে তার সামনে হাজির হয়। এসময় নাহিদকে ঢাকা মোটেøা- ল-১১৪৪৬১ নামে এক হোন্ডায় তুলে নেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী স¤্রাাট ও তার বন্ধু সিহাব। পরে তাকে চোখ বেঁধে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাজিম উদ্দিন হলে নিয়ে যায়। এতে তুর্য নামের এক শিক্ষার্থী তাদের সহযোগিতা করে। এসময় চক্রের অন্য সদস্য সজিব, নাহিদের বাবা নুরুল আমিনের কাছে মুঠোফোনে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপন দাবি করে। পরে তার বাবা মোবাইলে বিকাশ করে ১০ হাজার টাকা পাঠায়। টাকা হাতে পেয়ে নাহিদকে তারা একটি রিক্সায় তুলে দিয়ে কমলাপুর রেলস্টেশনে চলে যেতে বলে। কিন্তু নাহিদ পথিমধ্যে ওয়ারী থানায় হাজির হয়ে বিষয়টি এস আই নুর ইসলামকে জানায়। পরে ওই এস আই এর সহযোগিতায় নাহিদ নিরাপদে রাত ১২টার দিকে বাড়িতে পৌছায়। নাহিদ গাজিপুর জেলার কালিগঞ্জ থানার শালদিয়া গ্রামের বাসিন্দা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ