Inqilab Logo

রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

উভয় শেয়ারবাজারে বেড়েছে লেনদেন ও সূচক

প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন দুই বাজারে আগের কার্যদিবসের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৩৫ কোটি টাকার, যা গত কার্যদিবসের তুলনায় ৯৯ কোটি টাকা বেশি। সিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৩০ কোটি ৭০ লাখ টাকার। লেনদেন বাড়ার এ হার ২৯ শতাংশ।
এর আগে ২ মার্চ সর্বশেষ ডিএসইতে ৪০০ কোটি টাকার বেশি লেনদেন হয়। ওইদিন লেনদেন হয় ৫৭৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকার। কিন্তু এরপর থেকেই লেনদেন ৩০০ কোটি টাকার ঘরে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়ে। ৩ মার্চ থেকে ১৪ মার্চ পর্যন্ত টানা ৮ কার্যদিবস ৩০০ কোটি টাকা লেনদেন হয়। এ সময়ের মধ্যে ৬ মার্চ সর্বনিম্ন ৩০০ কোটি ২০ লাখ টাকা এবং ১০ মার্চ সর্বোচ্চ ৩৮৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে।
এদিকে লেনদেন বৃদ্ধির পাশাপাশি সূচকের সামান্য বৃদ্ধিতে শেষ হয়েছে দিনের লেনদেন। সোমবারের তুলনায় ডিএসই ব্রড ইনডেক্স (ডিএসইএক্স) ৮ দশমিক ১৭ পয়েন্ট বেড়ে দিনশেষে ৪৪৭৫ দশমিক ৮৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সোমবার সূচক কমেছিল ১২ দশমিক ৫৬ পয়েন্ট।
লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩১৫টি ইস্যুর মধ্যে দিনশেষে দর বেড়েছে ১৭৬টির, কমেছে ৯০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৯টির দর। লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স। দিনশেষে কোম্পানিটির ২৬ কোটি ৩৪ লাখ ৬৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা এ এফসি এগ্রোবায়োটেকের লেনদেন হয়েছে ১৭ কোটি ২২ লাখ ৮০ হাজার টাকার। ১৪ কোটি ৮৭ লাখ ২৬ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ওরিয়ন ইনফিউশন্স। লেনদেনে এরপর রয়েছে যথাক্রমে আমান ফিড, ওরিয়ন ফার্মা, বিডি থাই, অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, পাওয়ার গ্রিড, ইফাদ অটোস, সামিট পাওয়ার।
মঙ্গলবার লেনদেন শেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সবচেয়ে বেশি দর কমেছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের। দিনশেষে কোম্পানিটির শেয়ারের দর কমেছে ১০ দশমিক ৭৪ শতাংশ। সোমবারের সমাপনী মূল্যের (ক্লোজিং প্রাইস) সঙ্গে মঙ্গলবারের সমাপনী মূল্যের পার্থক্য হিসাবে কোম্পানিটির এ দর কমেছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। দর হারানোর শীর্ষে থাকা অপর ইস্যুগুলোর মধ্যে প্রিমিয়ার ইন্স্যুরেন্সের ৮ দশমিক ৬০ শতাংশ, সাভার রিফ্যাক্টরিজের ৮ দশমিক ১২ শতাংশ, মাইডাস ফাইন্যান্সের ৫ দশমিক ৬১ শতাংশ, এনসিসি ব্যাংক ফার্স্ট ফান্ডের ৫ দশমিক ০৮ শতাংশ, দুলামিয়া কটনের ৪ দশমিক ৪৭ শতাংশ, ইবিএল এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ডের ৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ, কেয়া কসমেটিকসের ৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্সের ২ দশমিক ৫৯ শতাংশ, রিজেন্ট টেক্সটাইলের ২ দশমিক ৫ শতাংশ দর কমেছে।
ডিএসইতে দর বাড়ার শীর্ষে থাকা ১০ কোম্পানি হলো- কেয়া কসমেটিকস, ফু-ওয়াং ফুড, দেশবন্ধু পলিমার, বিচ হ্যাচারি, আমান ফিড, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স, এশিয়া প্যাসেফিক, স্যালভো কেমিক্যাল, সোনালী আঁশ ও এএফসি অ্যাগ্রো।
দেশের অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সিএসসিএক্স ১২ দশমিক ১৭ পয়েন্ট বেড়ে দিনশেষে ৮৩৮৯ দশমিক ৬৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সোমবারের তুলনায় ৬ কোটি টাকা বেড়ে মঙ্গলবার লেনদেন হয়েছে ৩০ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১২২টির, কমেছে ৭৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টির দর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উভয় শেয়ারবাজারে বেড়েছে লেনদেন ও সূচক
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ