Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

স্থল শুল্ক রাজস্ব কার্যক্রমের ওপর বিভিন্ন অডিট আপত্তি দ্রুত নিষ্পত্তির তাগিদ

প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : জাতীয় সংসদের সরকারি হিসাব সম্পর্কিত কমিটির সভায় অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ ও নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের স্থল শুল্ক রাজস্ব কার্যক্রমের ওপর বিভিন্ন অডিট আপত্তি দ্রæত নিষ্পত্তির তাগিদ দেয়া হয়েছে।
গতকাল সংসদ ভবনে কমিটির সভাপতি ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কমিটির সদস্য মো. আব্দুস শহীদ, পঞ্চানন বিশ্বাস, মোঃ অফসারুল আমীন, মোঃ শামসুল হক টুকু, মইন উদ্দীন খান বাদল এবং মোঃ রুস্তম আলী ফরাজী সভায় অংশগ্রহণ করেন।
সভায় স্থল শুল্ক রাজস্ব আদায় ও হিসাবভুক্তি কার্যক্রম সম্পর্কিত অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ ও নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ২০০৬-০৭ ও ২০০৮-০৯ অর্থবছরের হিসেবের ওপর বাংলাদেশের মহা হিসাব-নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের বিশেষ অডিট রিপোর্ট ২০০৯-১০-এর অডিট আপত্তি/মন্তব্যের অনুচ্ছেদ নং : ১, ২, ৩, ৮, ৯, ১০, ১১ ও ১৩ সর্বমোট আটটি অডিট আপত্তির বিপরীতে জড়িত ৬ কোটি ৫৬ লক্ষ ৭০ হাজার ৩১২ টাকার আপত্তি নিয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় আপত্তিগুলো কমিটি কর্তৃক প্রদত্ত নির্দেশনার আলোকে দ্রæত নিষ্পত্তির সুপারিশ করা হয়। সভায় বলা হয়, আমদানীকৃত পণ্য সঠিক হারমোনাইজড সিস্টেম কোডে (এইচএস কোড) শুল্কায়ন না করায় শুল্ক কর বাবদ সরকারের ৯১ লক্ষ ৪২ হাজার ১৪৮ টাকা ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি প্রি-শিপমেন্ট ইনস্পেকশন এবং বিল অব লেডিং-এর কপি যাচাইপূর্বক আদায়যোগ্য না হলে নিষ্পত্তি এবং আদায়যোগ্য বিবেচিত হলে আদায় প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখার ব্যবস্থা গ্রহেেণর সুপারিশ করে। সভায় বলা হয়, ট্রেজারি চালান জালিয়াতির মাধ্যমে ৩২ লক্ষ ২০ হাজার ২২৫ ঠাকা রাজস্ব হয়েছে। এ বিষয়ে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি ত্রি-পক্ষীয় মিটিংয়ে বিষয় দু’টি যাচাই সাপেক্ষে অনধিক ত্রিশ দিনের মধ্যে আদায়পুর্বক নিষ্পত্তির সুপারিশ করে। সভায় আদায়কৃত ট্যারিফের শতকরা ৪৯ ভাগ ভ্যারিয়েবল রয়্যালটি পরিশোধ না করায় ১ কোটি ৩০ লাখ ৭২ হাজার ১৯২ টাকা আদায়যোগ্য এবং নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পুরোপুরি কমার্শিয়াল অপারেশন শুরু না করায় লিকুইডেটেড ড্যামেজ বাবদ ৬৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা আদায়যোগ্য মর্মে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি অনধিক সাত দিনের মধ্যে জমাকৃত টাকার প্রমানক জমাদান সাপেক্ষে অডিট অফিসের সন্তুষ্টি সাপেক্ষে বিষয় দু’টি নিষ্পত্তির সুপারিশ করে।
সভায় বলা হয় বন্দর ব্যবহারকারীর নিকট হতে মুসক কম আদায় করায় সুদসহ ১ কোটি ৪৮ লক্ষ ৮০ হাজার ৯৮৭ টাকা আদায়যোগ্য মর্মে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি অনধিক ত্রিশ দিনের মধ্যে আদায়পূর্বক বিষয়টি অডিট অফিসকে জানানোর সুপারিশ করে। সভায় ভ্যারিয়েবল রয়্যালটি আংশিক পরিশোধ করায় সুদ বাবদ ২৮ লাখ ২৯ হাজার ৩৭৫ টাকা আদায়যোগ্য মর্মে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি অনধিক সাত দিনের মধ্যে জমাকৃত টাকার প্রমানক জমাদান সাপেক্ষে অডিট অফিসকে ৩০দিনের মধ্যে জানানোর সুপারিশ করে। সভায় ট্যারিফ সিডিউলে বিদ্যমান থাকা সত্তে¡ও আমদানীকৃত পণ্যেও বিপরীতে বাণিজ্যিক ভ্যাট, মুসক ও অন্যান্য শুল্ক কর অনাদায় অথবা সঠিক হারে আদায় না করায় ৮৪ লাখ ৭৭ হাজার ৮৫৬ টাকা ক্ষতি মর্মে উত্থাপিত বিষয়টি নিষ্পত্তি করার পরামর্শ দেয়া হয়। এছাড়া নিলামে বিক্রিত পণ্যের বিক্রয়লব্ধ অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান না করায় সরকারের ৭৫ লক্ষ ৬৭ হাজার ৮২৯ টাকা ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি প্রমাণক জমাদান সাপেক্ষে অডিট অফিসের সন্তুষ্টি সাপেক্ষে বিষয়টি নিষ্পত্তির সুপারিশ করে। অডিট অফিস, অভ্যন্তরীন সম্পদ বিভাগ, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্থল শুল্ক রাজস্ব কার্যক্রমের ওপর বিভিন্ন অডিট আপত্তি দ্রুত নিষ্পত্তির তাগিদ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ