Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ বৈঠকে মায়ানমারের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপে চীন-রাশিয়ার বিরোধিতা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১১:৪০ এএম | আপডেট : ২:১১ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

রোহিঙ্গা ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ বৈঠকে উন্মুক্ত আলোচনায় কোনো সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব বা সমাধান আসেনি। মায়ানমারকে দ্রুত সামরিক অভিযান বন্ধের আহ্বান জানানো হয়েছে। সেই সঙ্গে বৈঠকে নিরাপত্তা পরিষদের অধিকাংশ সদস্যই মায়ানমারে জাতিগত নিধন ও গণহত্যা বিবরণ তুলে ধরেন।

তবে মায়ানমার প্রতিনিধি এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এদিকে চলমান পরিস্থিতিতে মায়ানমারের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপের বিরোধিতা করছে প্রভাবশালী দুই সদস্য চীন ও রাশিয়া। খবর বিবিসির।

বৈঠকের শুরুতেই জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, মায়ানমারে সহিংসতা বর্তমানে বিশ্বের দ্রুততম শরণার্থী সমস্যার সৃষ্টি করেছে যা কিনা মানবাধিকার পরিস্থিতিকে অত্যন্ত নাজুক অবস্থায় নিয়ে গিয়েছে।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে মহাসচিব মায়ানমার সরকারকে সেই সেনা অভিযান বন্ধের আহ্বান জানান যা কিনা গত মাসে প্রায় পাঁচ লাখের মতো রোহিঙ্গা মুসলিম জনগোষ্ঠীকে দেশছাড়া করেছে।

তিনি তার বক্তব্যে সহিংসতা থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা গোষ্ঠীর ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথাও উল্লেখ করেন।

রাখাইনে জাতিসংঘ এবং অন্যান্য সংস্থার প্রতি দেশটির বৈরি আচরণে গুতেরেস তার উদ্বেগের কথা উল্লেখ করেন এবং অবিলম্বে সেখানে মানবিক সহায়তা প্রবেশের দাবি জানান।

গুতেরেস বলেন, রাখাইনে সেনা অভিযান বন্ধ করতে হবে এবং সেখানে মানবিক সহায়তার সুযোগ দিতে হবে।

পাশাপাশি পালিয়ে যাওয়া রোহিঙ্গাদের নিরাপদে কোন বৈষম্য ছাড়াই নিজ গ্রামে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য মায়ানমার সরকারের প্রতিও আহবান জানান।

রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতা মায়ানমারের অন্য এলাকাগুলোতেও ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে সতর্ক করে দেন তিনি।

তবে নিরাপত্তা পরিষদের এ বৈঠকে চীন ও রাশিয়া আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের ওপর গুরুত্ব দিয়েছে।

এ বৈঠকে মায়ানমারের একজন প্রতিনিধি ও জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধিও বক্তব্য দিয়েছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিরাপত্তা পরিষদ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ