Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৩ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব নিলেন বিচারপতি আবদুল ওয়াহহাব মিঞা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ অক্টোবর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

প্রধান বিচারপতির দায়িত্বে আপিল বিভাগের সিনিয়র বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞার। প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা ছুটিতে যাওয়ায় সুপ্রিম কোর্টের অবকাশ শেষে প্রথম কার্য দিবসেই বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টা ৫ মিনিটে বিচারপতি ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বে পাঁচ বিচারকের আপিল বেঞ্চের বিচারিক কর্যক্রম শুরু হয়। তা ১০টা পর্যন্ত চলে। বেঞ্চের অপর বিচারকরা হলেন- বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার।
আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার জীবনী : বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা ১৯৫১ সালের ১১ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৬ সালে তিনি সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন। ১৯৯৯ সালের ২৪ অক্টোবর তিনি হাইকোর্ট বিভাগে অতিরিক্ত বিচারক হিসেবে দায়িত্ব নেন। পরে ২০০১ সালের ২৪শে অক্টোবর হাইকোর্ট বিভাগে স্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা। এরপর ২০১১ সালের ২৩ ফেব্রæয়ারি তিনি আপিল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ প্রাপ্ত হন।
ফুলকোর্টের সভা: বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি অক্ষুন্ন রাখতে বিচারকদের প্রতি আহŸান জানিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা। সুপ্রিম কোর্টের ফুলকোর্ট সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। সংশ্লিষ্ট সূত্র বৈঠকে আলোচনার বিষয়গুলো নিশ্চিত করেছে। দুপুর সোয়া দুইটা থেকে প্রায় তিনটা পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের জাজেজ লাউঞ্জে ফুলকোর্ট সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতিরা অংশ নেন। সাধারণত আদালত ও বিচার বিভাগীয় প্রশাসন কীভাবে পরিচালিত হবে সে বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় ফুলকোর্ট সভায়। এসময় বিচারকদের উদ্দেশ্যে আবদুল ওয়াহহাব মিঞা বলেন, সময় মতো কোর্টে আসবেন এবং এজলাসে বসবেন। বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় এমন কাজ করবেন না। এছাড়া দ্রুত রায় লেখার ওপর গুরুত্বারোপ করেন দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি।
হাইকোর্ট বসেনি: প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে পুনর্গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে কোনো বিচারিক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়নি। তিনি ছুটিতে যাওয়ার কারণে হাইকোর্টের বেঞ্চগুলো পুনরায় পুনর্গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিপারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞা। আর এ কারণেই মঙ্গলবার হাইকোর্টে কোনো বিচারিক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ