Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

হলমার্কের জিএম তুষার আহমেদের রিট খারিজ

প্রকাশের সময় : ১৭ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার ঃ মুদ্রা পাচার নতুন আইনে মামলা পরিচালনার বৈধতা চ্যলেঞ্জ করে হলমার্ক গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) তুষার আহমেদের রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। গতকাল (বুধবার) এ বিষয়ে রুলের নিষ্পত্তি করে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন।  ২০১২ সালের মুদ্রা পাচার প্রতিরোধ আইনের ৩১ ধারায় বলা হয়েছে, ওই আইন হওয়ার সঙ্গে পুরনো আইন ও অধ্যাদেশ বিলুপ্ত হয়ে যাবে। তবে আগের আইনে দায়ের হওয়া কোনো মামলা অনিষ্পন্ন থাকলে তার বিচার নতুন আইনেই হবে। তুষারের আইনজীবী আদালতে যুক্তি দেন, একই বিষয়ে একই সঙ্গে নয়টি মামলা চলতে পারে না। এটা সংবিধানের ৩৫ (২) অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। আমরা এ বিষয়ে আপিল করব। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১০ থেকে ২০১২ সালের মার্চ পর্যন্ত সময়ে সোনালী ব্যাংকের রূপসী বাংলা শাখা থেকে অনিয়মের মাধ্যমে হলমার্ক গ্রুপের আড়াই হাজার কোটি টাকা ঋণ নেয়া হয়। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১২ সালের আগস্টে আর্থিক খাতে বড় এ কেলেঙ্কারির ঘটনার অনুসন্ধান ও তদন্ত শুরু করে দুদক। প্রাথমিক অনুসন্ধান শেষে ২০১২ সালের ৪ অক্টোবরে ১১টি মামলা করা হয়। এরপর ২০১৩ সালের ৭ অক্টোবর হলমার্ক পের পরিচালক তানভীর মাহমুদ, চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলাম ও মহাব্যবস্থাপক তুষারসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অভিযোগপত্রে বলা হয়, সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগসাজশে রূপসী বাংলা হোটেল শাখা থেকে হলমার্ক মোট দুই হাজার ৬৮৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি মুদ্রা পাচার আইনের ৩১ (৩) ধারা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করেন তুষার আহমেদ। রিট আবেদনে বলা হয়, হলমার্কের ঋণ জালিয়াতির অভিযোগে দায়ের করা ১১টি মামলার মধ্যে নয়টিতে তুষারের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে। এসব অভিযোগের সময়কাল ২০০৯ সাল, ঘটনাস্থলও এক। মুদ্রা পাচার প্রতিরোধ আইনের ৩১ এর ৩ ধারার সুযোগ নিয়ে এসব মামলায় ২০১২ সালের আইন অনুযায়ী অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে। প্রাথমিক শুনানি শেষে হাইকোর্ট রুল জারি করেন। গতকাল রুলের নিষ্পত্তি করে এ আদেশ দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হলমার্কের জিএম তুষার আহমেদের রিট খারিজ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ