Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ০৯ কার্তিক ১৪২৪, ০৩ সফর ১৪৩৯ হিজরী

বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১১ আহত ২৮

ইনকিলাব ডেস্ক: | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই ব্যাংক কর্মকর্তা ও পুলিশের এক এসআই সহ নিহত হয়েছে ১১ জন। এ সময় আহত হয়েছে অন্তত ২৮ জন। এ সংক্রান্ত আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো প্রতিবেদন-
ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা জানান, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পাঁচমাইল এলাকায় মাহেন্দ্র ও পিকআপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে জুবায়ের আলম (৩০) ও আব্দুল মালেক (৪২) নামে দুই ব্যাংক কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ৮ জন আহত হয়েছেন। বুধবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ঝিনাইদহ-মাগুরা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল মালেক শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক হাটগোপালপুর শাখার ম্যানেজার ও জুবায়ের আলম একই ব্যাংকের অ্যাসিস্ট্যান্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার ছিলেন। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক শেখ জানান, রাতে হাটগোপালপুর থেকে মাহেন্দ্রযোগে ১০ জন যাত্রী ঝিনাইদহে আসছিলেন। মাহেন্দ্রটি পাঁচ মাইল এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দুর্ঘটনায় ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হাটগোপালপুরের হাসান, হরিশংকরপুর গ্রামের মুকুল ও ঝিনাইদহ শহরের মহিলা কলেজ পাড়ার কামরুল ইসলাম ও মাহেন্দ্র চালকসহ ৮ যাত্রী আহত হন। খবর পেয়ে ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জুবায়েরকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাত সাড়ে ১২ টার দিকে ব্যাংকের ম্যানেজার আব্দুল মালেক মারা যান।
মাদারীপুর জেলা ও রাজৈর উপজেলা সংবাদদাতা জানান, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার আলমদস্তার নামক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় রাজৈর থানার পুলিশের এসআই মো. মনির হাসান নিহত হয়েছেন। এ সময় পুলিশের কনস্টেবল ইউসুব আলী নামে অপর এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজৈর থানার এসআই মনির হাসান ও কনস্টেবল ইউসুব আলী কর্তব্য কাজে থানা থেকে মোটরসাইকেল যোগে টেকেরহাট যাওয়ার সময় আলমদস্তার নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা মাদারীপুরগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে মটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষে দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়। আহতদেরকে প্রথমে রাজৈর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে এসআই মনির হাসান নামে এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু হয়। পুলিশ কনস্টেবল ইউসুব আলীকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। নিহত মনিরহাসান ফরিদপুরের কোতয়ালী থানার নিখুরদি গ্রামের আব্দুস সালাম মোল্লার ছেলে। এ সময় ঘাতক বাসটি আটক করা হলেও ড্রাইভার পালিয়ে যায়।
ভালুকা (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ভালুকা উপজেলার ভরাডোবা বাকসাঁতরা ব্রীজের কাছে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে বাস-ট্রাক্টরের সংঘর্ষে ট্রাক্টর চালক রফিকুল ইসলাম নিহত ও ১০ জন বাস যাত্রী আহত হয়। গুরুতর আহত ৬ জনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। জানা যায়, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী শ্যামলী পরিবহণের একটি বাস ওই স্থানে পৌঁছে একটি ট্রাক্টরকে পিছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ট্রাক্টরটি রাস্তার বিপরীত পাশে ছিটকে পড়ে এবং বাসটি খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ট্রাক্টরের চালক ত্রিশাল উপজেলার গুজিয়াম গ্রামের হজরত আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (২৪) মারা যান। খবর পেয়ে ভরাডোবা হাইওয়ে পুলিশ ও ভালুকা ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।
সিরাজগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা জানান, সিরাজগঞ্জ বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়ক ও কাজিপুরে পৃথক দু’টি সড়ক দুর্ঘটনায় এক চালক ও নারীসহ ৩ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো দুইজন আহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের সীমান্ত বাজার ও বুধবার রাতে কাজিপুরের নিশ্চিন্তপুরের আঞ্চলিক সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে দুই জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলেন- সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার গোয়ালবাথা গ্রামের সোহরাব হোসেনের স্ত্রী শাহারা খাতুন ও নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর থানার দক্ষিণকুড়া গ্রামের মোজাফফর হোসেনের ছেলে ট্রাক চালক নজরুল ইসলাম। বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম থানার (ওসি) আবু দাউদ জানান, বৃহস্পতিবার ভোর রাতে নওগাঁ থেকে চাল বোঝাই একটি ট্রাক ঢাকা যাচ্ছিল। ট্রাকটি বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কের সীমান্ত বাজার নামক এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত থেকে উত্তরাঞ্চলগামী টিন বোঝাই একটি ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ১ জন নিহত ও ৩ জন গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করার পর রাতে নজরুল ইসলাম নামে এক ট্রাক চালকের মৃত্যু হয়। অপরদিকে সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার নিশ্চিন্তপুরে ভুটভুটি ও মটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে শাহারা খাতুন নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। জানা যায়, বুধবার রাতে কাজিপুরের নিশ্চিন্তপুর আঞ্চলিক সড়কে ভুটভুটি ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল আরোহী শাহারা খাতুন গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১১টার দিকে তিনি মারা যান।
মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, মির্জাপুরে ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে যাত্রীবাহি বাসের দুই যাত্রী নিহত ও কমপক্ষে ৭ যাত্রী হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলাস্থ জামুর্কী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার রাত তিনটার দিকে মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার ধল্যা সাদিয়া টেক্সটাইল মিলের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন নওগাঁ জেলার ধামুরহাট উপজেলার জগরনগর গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে পলাশ (১৭) জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার মহববতপুর অমলের ছেলে গোপাল (২১)। পুলিশ জানায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জয়পুরহাট গামী এসআই ট্রাভেলস একটি যাত্রীবাহি বাস মহাসড়কের ওইস্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে বাসের একপাশে থাকা যাত্রীরা হতাহত হন। ট্রাকটি পালিয়ে গেছে। দুর্ঘটনার কাছাকাছি মির্জাপুর থানা পুলিশের টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার শুরু করে। পরে মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছে হতাহতদের হাসপাতালে নিয়ে যায়।
কালিয়াকৈর (গাজীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, সফিপুর- মাঝুখান আঞ্চলিক সড়কে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর তালতালী মাঠ এলাকায় গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে অটোরিক্সার চাপায় মারুফা বেগম (৬) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। নিহত শিশু সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার চন্দনগাতী এলাকার আঃ মালেক হোসেনের পালিত মেয়ে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে সফিপুর বাজার থেকে একটি অটোরিক্সা চালক একজন যাত্রী নিয়ে রতনপুর রেল ষ্টেশনে যাওয়ার পথে ছালেক স্পিনিং মিলের সামনে শিশুটি দ্রæত রাস্তা অতিক্রম করার চেষ্টা করে। এসময় চলন্ত অটোরিক্সার সাথে ধাক্কা লাগলে রিক্সাটি উল্টে গেলে চালক,যাত্রী ও শিশুটি চাপা পড়ে। এলাকাবাসী উদ্ধার করে তাদের সফিপুর খাজা বদরুদ্দোজা মর্ডান হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় মুছা (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের মহিষকুন্ডি কলেজ পাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানায়, মহিষকুন্ডি কলেজপাড়া এলাকার মোহন আলীর পাঁচ বছর বয়সী ছেলে মুছা বাড়ি সংলগ্ন কলেজ সড়কে খেলা করছিল। এসময় দ্রুতগামী একটি পাখিভ্যান তাকে চাপা দিয়ে ভ্যানসহ চালক পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা শিশু মুছাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় একটি বেসরকারী চিকিৎসা কেন্দ্রে নিলে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। মহিষকুন্ডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম সড়ক দুর্ঘটনায় শিশু মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর