Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন: আমি প্রেগনেন্ট হয়ে গেছি বলে আমার বয়ফ্রেন্ডকে জানাই এবং বিয়ের জন্য রাজি করি। পরে অবশ্য মিসক্যারেজ হয়ে গেছে বলে পার পাই। আমাদের বিয়ে কি বৈধ হবে? যদি গোনাহ্ হয়ে থাকে তাহলে এখন কি করব? বিবাহ জীবন ভালো যাচ্ছে মনে মনে অত্যন্ত লজ্জিত। কি করতে পারি?

উত্তর : মুসলমান হিসাবে প্রকৃত বিশ্বাস শিক্ষা ও সংস্কৃতি আয়ত্ব করতে না পারায় আপনি আপনার জীবনকে অনেক এলোমেলো করে ফেলেছেন। ধর্মহীন সমাজে এসব চলে। কিন্তু ইসলামী সমাজে এসবই অন্যায়। প্রথমে আপনি অবৈধ মেলামেশায় গিয়েছেন, প্রেগনেন্সির সম্ভাবনা তৈরি করেছেন। এরপর নিঃসন্দেহে প্রেম নামক একটি কামনা বাসনামূলক অবৈধ সম্পর্ককে বৈধ রূপ দেওয়ার জন্য মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছেন। বলতে গেলে আপনার সঙ্গীকে ব্ল্যাকমেইল করেছেন। এখানে আপনি ও আপনার পুরুষ সঙ্গী একই অপরাধে অপরাধী। গোনাহর কোনো সীমা নেই। তবে এমন গোনাহ বা এরচেয়ে হাজারগুণ বেশি...









আর্কাইভ
রোব সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি