Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২২ মে ২০১৯, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৬ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

প্রশ্নঃ অসাবধানতাবশত অথবা আবেগের বশে রোযার দিনে আমাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দৈহিক মিলন হয়ে গিয়েছে। এখন এর কাফফারা বা করনীয় কী?

 উত্তরঃ ফরয রোযা রাখা অবস্থায় দৈহিক মিলন পানাহারের মতোই নিষিদ্ধ। যে স্বামী-স্ত্রী ফরয রোযা অবস্থায় দৈহিক মিলনে চলে যান। তাদের রোযা ভেঙ্গে যায়। এভাবে রোযা ভাঙ্গলে শুধু কাযা করলে হয় না। কাফফারা করতে হয়। কাযা অর্থ এক রোযার বদলে এক রোযা রাখা। কাফফারা অর্থ এক রোযার বদলে একাধারে ৬০টি রোযা রাখা। মাঝে কোনো কারণে একটি রোযা ছেড়ে দিলে নতুন করে আবার ৬০টি রোযা রাখতে হবে। এটি মূলত আল্লাহর হুকুম অমান্য করে রোযার সময় দিনের বেলায় স্বামী-স্ত্রীর অসাবধানতা কিংবা আবেগবশত সেক্স...









আর্কাইভ