Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর



আমি নামাজে দাঁড়ালে আমার ১৫ মাসের কন্যা সন্তান আমার সামনে এসে সেজদা দেয় এবং মাঝে মাঝে সেজদারত অবস্থায় থেকে যায়। এমতাবস্থায় আমার সেজদার সময় হয়ে গেলে আমি তাকে হাত দিয়ে সরিয়ে সেজদা দেই। এমনও হয় সে আমার বুকের নিচে থাকে আমি সেজদা দিয়ে উঠে যাই। তার আচরনের প্রতি তেমন মনোযোগ দেই না। প্রশ্ন হল, এতে কি আমার নামাজ হয়? আমার মেয়ে কি গুনাহগার হবে?

উত্তর : এভাবে নামাজ পড়লে নামাজের কোনো ত্রুটি হয় না। এভাবে শিশুদের আনাগোনা, অবস্থান করা অবস্থায় আল্লাহর নবীও (সা.) নামাজ পড়েছেন। শিশুদের তো গোনাহ হওয়ার কোনো সুযোগই নাই। উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভীসূত্র : জামেউল ফাতাওয়া,...


আমার স্বামী বিমান বাহিনীর অফিসার। ৫ মাসের একটা ট্রেইনিংএ উনি শ্রীলঙ্কাতে একটি নির্দিষ্ট স্থানে অবস্থান করছেন। আগামী কিছুদিনের মধ্যে ট্রেইনিং এর অংশ হিসেবে উনাকে ৭০ কিলোমিটারের ভেতরে আরেকটি উষ্ণ বালুময় অঞ্চলে সাত দিনের জন্য অবস্থান করতে হবে। যা উনার জন্য খুবই কষ্টসাধ্য হবে। এই ট্রেনিং এ উনি একমাত্র মুসলমান অফিসার। এই অবস্থায় ওনার জন্য রোজা কি ফরজ?

উত্তর : শ্রীলঙ্কা গিয়ে যেহেতু তিনি নিয়ত করে ছয় মাস যাবত আছেন, অতএব তিনি আর মুসাফির নন। কিন্তু বর্তমানে যেখানে যেতে চান তার দূরত্ব হিসাবে তিনি মুসাফির হন না। অবস্থানকাল হিসাবে যদিও এটি মুসাফিরির মধ্যে পড়ে। এখানে সম্ভব হলে তার...


আমার বোন যাকাত পাবার যোগ্য। সে তার স্বামীর বাড়িতে থাকে। আমি কি তাকে আমার যাকাতের টাকা দিতে পারবো? এই মুহূর্তে তার একটি মোবাইল প্রয়োজন, বিনোদনের জন্য নয়। যোগাযোগের প্রয়োজনেই তার এটা এখন দরকার। মোবাইল না থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করতে পারি না। কিন্তু তার হাতে মোবাইল কেনার টাকা নাই। যাকাতের টাকা দিয়ে আমি কি তাকে মোবাইল কিনে দিতে পারবো। আলাদা বসবাসকারী আপন ভাইকে কি যাকাতের টাকা দেওয়া যাবে?

উত্তর : আপন ভাইবোনকে যাকাতের টাকা দেওয়া যায়। আপনার বোনকে যাকাতের টাকা দিয়ে মোবাইল কিনে দিতে পারবেন। ভাইকেও যাকাত দিতে পারবেন। যাকাত কেবল নিজের পিতামাতা ও তার ওপরের মূল সিড়িটিকে দেওয়া যায় না, যেমন আপন দাদা-দাদি, নানা-নানি কিংবা তাদের বাবা-মা।...



মুসলিম উম্মাহর জন্য যাকাত অন্যতম ফরজ একটি বিধান। এটিকে যাকাতদাতার সম্পদের উপর এক ধরনের কর বা ট্যাক্স বলা যায়। এ কারণে অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন, আমরা যেহেতু আমাদের সম্পদের উপরে সরকারকে রাষ্ট্র কর্তৃক নির্ধারিত ট্যাক্স বা কর প্রদান করেই থাকি, সুতরাং এমতাবস্থায় কেন আবার আলাদা করে যাকাত দিতে হবে? ইসলামের প্রাথমিক যুগে ইসালমিক খেলাফত আমলে রাজস্ব আদায় করা হত যাকাতের মাধ্যমে, পক্ষান্তরে বর্তমান যুগে সরকার রেভিনিউ আয় করে ট্যাক্স আদায়ের মাধ্যমে। যদি তাই হয়, তাহলে আবার আলাদা করে কেন যাকাত দিতে হবে?

উত্তর : এ প্রশ্নটি অবান্তর। কারণ, কোনো দেশে যদি যোগব্যায়াম বা শরীরচর্চা বাধ্যতামূলক করা হয়, তাহলে মুসলমানরা কি এরপর আর নামাজ পড়বে না? সুতরাং রেভিনিউ বা ইনকাম ট্যাক্স দিয়ে দিলেই যাকাত দিতে হবে না, এ চিন্তাটি সম্পূর্ণ ভুল। কারণ, যাকাত...



আর্কাইভ
রোব সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি